চট্টগ্রাম, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সয়াবিন তেলের দাম না বাড়িয়ে উপায় ছিল না: বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ৯ মে, ২০২২ ১:১২ : অপরাহ্ণ

তেলের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে, সেটা সত্যি। সাধারণ মানুষের কষ্ট হচ্ছে এটাও সত্যি। তবে সয়াবিন তেলের দাম না বাড়িয়ে উপায় ছিল না।

সোমবার (৯ মে) দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ভোজ্যতেলের উৎপাদকদের সঙ্গে বৈঠকের পর আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে এ কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

তিনি বলেন, গত কয়েকদিন ধরে তেলের দাম নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় খবর ছাপা হচ্ছে। কিন্তু কোথাও বলা হচ্ছে না, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়েছে। নেপাল, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কাসহ প্রায় সব দেশেই তেলের দাম বেড়েছে। গত এক বা দেড় মাসে গ্লোবাল মার্কেটে দামের কেমন তারতম্য সেটা নিয়ে কোনও নিউজ করা হচ্ছে না।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা মাত্র ১০ শতাংশ তেল উৎপাদন করি, কিন্তু ৯০ শতাংশই বাইরে থেকে আসে।

আন্তর্জাতিক দাম বাড়ার সাথে দেশের মানুষকে অভ্যস্ত হবার পরামর্শ দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ব্যবসায়ীর লাভ যেন যৌক্তিক হয় সে দায়িত্ব সরকারের। গণমাধ্যমের উচিৎ জনগণকে আন্তর্জাতিক বাজার সম্পর্কে জনগণকে অবহিত করা। তবে আন্তর্জাতিক বাজারের চেয়েও ২২ টাকা কমে তেল বিক্রি করছি আমরা।

তিনি বলেন, তেল নিয়ে কোথায় কোথায় সমস্যা হয়েছে সেটা চিহ্নিত করেছি। আমরা তা প্রকাশ করব।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, মানুষকে বিশ্বাস করা পাপ। ব্যবসায়ীদের বিশ্বাস করে আমরা সেই ভুলটা করেছি। এটাই আমদের ব্যর্থতা তাদের বিশ্বাস করা। তেল বাজার থেকে উধাও করার কারসাজি করেছে খুচরা বিক্রেতারা। সেই সঙ্গে ব্যবসায়ীরা কথা রাখেনি, রোজায় তেলের দাম না বাড়ানোর অনুরোধ তারা রাখেনি।

এসময় তিনি আরও জানান, জুন থেকে আবারও ১ কোটি পরিবারকে ন্যায্য মূল্যে নিত্যপণ্য দিবে টিসিবি।

সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly and PDF