চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২ , ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মা দিবসে কাঁদতে কাঁদতে ইঞ্জিনিয়ার ছেলের প্রতারণার কথা জানালেন বৃদ্ধা, চাইলেন শাস্তি

প্রকাশ: ৯ মে, ২০২২ ১২:৫৫ : অপরাহ্ণ

মা দিবসে মাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে আসছে মায়ের সঙ্গে সন্তানের নিবিড় সম্পর্ক, শর্তহীন ভালোবাসার কথা। কিন্তু মা-য়েদের এই বিশেষ দিনেই নিজের ছেলের শাস্তি চেয়ে আকুতি জানিয়েছেন ৮৩ বছরের এক বৃদ্ধা মা।

ইন্ডিয়ার এক্সপ্রেসের খবর অনুযায়ী, ঘটনা পশ্চিমবঙ্গের গাইঘাটা থানার চাঁদপাড়া ঢাকুরিয়া এলাকার। নিজের ছেলের বিরুদ্ধে থানায় প্রতারণার অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। শেষ পর্যন্ত, অভিযুক্ত ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ছেলের নাম প্রণব কুমার দাস। তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের সিপিডব্লিউডি-তে ইঞ্জিনিয়ার পদে কর্মরত। বর্তমানে তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে থাকেন বাগুইহাটি এলাকায়। বৃদ্ধা বাণী দাস, ছেলে, বৌমা, নাতির বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অভিযোগ জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

অভিযোগ, ২০১৮ সালে ছোট ছেলে প্রণব মাকে চিকিৎসার নাম করে গাইঘাটার বকচরা এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। বৃদ্ধা মাকে জোর করে বিভিন্ন কাগজপত্রে সই করিয়ে নেয় । বৃদ্ধার নামে থাকা জমি-বাড়ি নিজের নামে লিখে নেয়।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, বাণী দেবীর তিন ছেলে। বড় ছেলে আগেই মারা গেছে। স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে তিনি মেজ ছেলে অনুপ কুমার দাসের কাছেই থাকেন। ছোট ছেলে অভিযুক্ত প্রণব তাঁর পরিবার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কলকাতার বাগুইহাটি এলাকায় থাকেন।

মেজ ছেলে অনুপ কুমার দাসের দাবি, ‘ভাই বাড়িতে এসে মাকে চিকিৎসার নাম করে একদিন নিয়ে গিয়েছিল। বলেছিল দলিলে মায়ের নাম ভুল আছে, সেটা পরিবর্তন করতে হবে। পরে আমরা জানতে পারি, সে মাকে বকচরার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ভুল বুঝিয়ে জোরজবস্তি করে বিভিন্ন কাগজপত্রে সই করিয়ে নেয়। মার নামে থাকা জমি-বাড়ি সহ সকল সম্পত্তি নিজের নামে লিখে নেয়। এই কাজে ভাইকে তার স্ত্রী সহ আরো কয়েকজন সহযোগিতা করে। ঘটনার কথা জানাতেই আমরা গাইঘাটা থানা দ্বারস্থ হই।’

বৃদ্ধা বাণী দাস বলেন, ‘আমার ছোট ছেলে জোর কারে আমার জমি ওর নামে লিখিয়ে নিয়েছে। সে বড় চাকরি করে কিন্তু আমাকে দেখে না। ওর শাস্তি হোক।’

বনগাঁ মহকুমা আদালতের আইনজীবী বিশ্বরূপ সিংহ বলেন, ‘বৃদ্ধা সঙ্গে প্রতারণা করে ইংরেজিতে লেখা স্ট্যাম্প পেপারে সই করিয়ে তার সম্পত্তি লিখিয়ে নিয়েছে ছেলে প্রণব দাস। বৃদ্ধা, ছেলে বউমাসহ তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানিয়েছিলেন। পুলিশ প্রণব দাসকে গ্রেপ্তার করে বনগাঁ মহকুমা আদালতে পাঠালে বিচারক তাকে জেলে পাঠিয়েছেন।’

Print Friendly and PDF