চট্টগ্রাম, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ , ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

১১ এপ্রিল হতে পারে পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন

প্রকাশ: ১০ এপ্রিল, ২০২২ ১২:১০ : অপরাহ্ণ

নানা নাটকীয়তার শেষে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অনাস্থা ভোটে হেরে যাওয়ার পর চিন্তাভাবনা চলছে নতুন নির্বাচন নিয়ে। জিও নিউজের এক প্রতিবেদন বলছে, ইমরান খান অনাস্থা ভোটে হেরে যাওয়ায় দেশটিতে আগামীকাল সোমবার (১১ এপ্রিল) নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন হতে পারে।

পাকিস্তানের ইতিহাসে অনাস্থা ভোটে হেরে যাওয়া প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নাম লিখিয়েছেন ইমরান খান। শনিবার (৯ এপ্রিল) মধ্যরাতে অনাস্থা ভোটে হেরে যান তিনি। ভোটাভুটির ওই অধিবেশনটি পরিচালনা করেন সাবেক স্পিকার আয়াজ সাদিক। বিরোধীদের অনাস্থা প্রস্তাবে ইমরানের বিরুদ্ধে ভোট পড়েছে ১৭৪টি। প্রস্তাবটি পাসের জন্য দরকার ছিল ১৭২ ভোট।

নতুন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন পাকিস্তান মুসলিম-লিগের (নওয়াজ) নেতা শেহবাজ শরিফ। তিনি দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই।

এর আগে পাকিস্তানের স্থানীয় সময় শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ জাতীয় পরিষদের অধিবেশন শুরু হয়। কিন্তু অনাস্থা ভোটের আগে ইমরান খানের সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সংসদের ভেতর তুমল হট্টগোল শুরু হলে জাতীয় পরিষদের স্পিকার সাময়িকভাবে অধিবেশন মুলতবি করেন।

এর দুই ঘণ্টা পর আবার অধিবেশন শুরু হয়। এরপর আবার মুলতবি ঘোষণা করা হয় এবং এশার নামাজ পর্যন্ত মুলতবি থাকে।

ফলাফল ঘোষণার পর স্পিকার আয়াজ সাদিক শাহবাজ শরীফকে বক্তৃতা দেওয়ার অনুরোধ জানান। শাহবাজ তার বক্তৃতায় বলেন, ‘আমরা এই নতুন দিনটি দেখার অপেক্ষায় ছিলাম। সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ।’

পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন ইমরান খান। তার পতনের মধ্য দিয়ে দেশটির নির্বাচিত একজন প্রধানমন্ত্রীও তার মেয়াদ পূর্ণ করতে পারলেন না।

Print Friendly and PDF