চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ , ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিজারের সময় বিদ্যুৎবিভ্রাট, মোবাইল ফোনের টর্চ জ্বালিয়ে হাসপাতালে শিশুর জন্ম!

প্রকাশ: ৯ এপ্রিল, ২০২২ ১২:২৮ : অপরাহ্ণ


অপারেশন থিয়েটারের টেবিলে প্রসব যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন এক নারী। এসময় হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে যায়। এরপর অপারেশন থিয়েটার থেকে বেরিয়ে ওই নারীর স্বামীকে এক নার্স বলেন, মো‌বাইল ফোন, টর্চ লাইট, মোমবাতি যা পাবেন নিয়ে আসুন।

নার্সের এমন কথা শুনে ওই ব্যক্তির যেন মাথায় হাত। কেননা পুরো হাসপাতালে ঘুটঘুটে অন্ধকার। তার মধ্যে এতগুলো মোবাইল বা মোমবাতি জোগাড় করবেন কীভাবে? কিন্তু জোগাড় তো করতেই হবে। না হলে জীবন বিপন্ন হতে পারে স্ত্রী-সন্তানের!

তাই সময় নষ্ট না করে মোবাইল ফোন জোগাড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন তিনি। অনেক কষ্টে কয়েকটি মোবাইল ফোন জোগাড়ও করেন তিনি। শেষে মোবাইলের টর্চের আলোতেই অস্ত্রোপচার হয় তার স্ত্রীর। জন্ম নেয় ফুটফুটে একটি সন্তান।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের নারসিপতনমের এনটিআর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, প্রসব ব্যথা উঠেছিল সুকন্যার। তাকে নিয়ে যাওয়া হয় অপারেশন থিয়েটারে। অপারেশন শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে চলে যায় বিদ্যুৎ। এমন পরিস্থিতি সামাল দেয়ার জন্য প্রয়োজন ছিল জেনারেটর। কিন্তু তা ছিল না।

সুকন্যার স্বামী বলেন, তারা বলে গেলেও মাথায় তখন চিন্তা রাতে এত মোবাইল ফোন কীভাবে জোগাড় করব? কেননা শুধু আমার স্ত্রী নয়, আরও অনেক নারীরই এক অবস্থা।

তিনি বলেন, পরিস্থিতি এতটাই মারাত্মক ছিল যে ভেবেই শিউরে উঠছি। তখন মাথায় কেবল একটাই চিন্তা ঘুরপাক করছিল আমার স্ত্রী, সন্তানকে বাঁচাতে হবে। তারপর মোবাইল ফোন জোগাড় করে চিকিৎসকদের হাতে তুলে দেই। সেই আলোতেই অপারেশন করেন তারা।

প্রসঙ্গত, গত কয়েক দিন ধরেই বিদ্যুতের ঘাটতি চলছে অন্ধ্রপ্রদেশে। জোগানের চেয়ে চাহিদা বেশি। তাই ৫০ শতাংশ বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ঘোষণা দিয়েছে রাজ্য বিদ্যুৎ দপ্তর।

Print Friendly and PDF