চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় মাদক মামলায় নারীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ: ৩১ মার্চ, ২০২২ ৫:৩২ : অপরাহ্ণ


গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পাঁচশ গ্রাম হেরোইন পাচারের দায়ে পারভিন বেগম নামে এক নারীকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। তবে এ মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন চার আসামি।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) দুপুর ১২টার দিকে গাইবান্ধার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত পারভিন বেগম উপস্থিত ছিলেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পারভীন বেগম ওরফে শায়লার (৪২) বাড়ি গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার বর্ষণ এলাকায়। পারভিন ওই এলাকার মাহির উদ্দিনের স্ত্রী।

মামলায় খালাস পাওয়া চারজন হলেন- বিপুল মিয়া, রমজান আলী, সাজু মিয়া ও সোহাগ হাসান। তাদের সকলের বাড়ি দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাষ্টপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. ফারুক আহম্মেদ প্রিন্স বলেন, ৫০০ গ্রাম হিরোইন পাচারের দায়ে পারভিনসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। আদালতে মামলার দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষীর সাক্ষ্যতে পারভীন মাদক কারবারির সঙ্গে জড়িত ছিলেন তা প্রমাণ হয়েছে। আদালত পারভিনকে মৃত্যুদণ্ড ও চার আসামিকে খালাস দিয়েছেন। এটিই গাইবান্ধা জেলায় প্রথম নারী মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যুদণ্ড।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৮ ডিসেম্বর দিনাজপুর থেকে বগুড়াগামী পায়না পরিবহণের যাত্রীবাহী বাস গোবিন্দগঞ্জের কাটাবাড়ি এলাকায় তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় বাসটিতে থাকা পারভীন বেগমের হাতব্যাগ থেকে ৫০০ গ্রাম হিরোইন জব্দসহ তাকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় পারভীনকে প্রধান করে পুলিশ বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়। পরে তদন্ত শেষে ৫ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

Print Friendly and PDF