চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪ , ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের টানা ৭ম দিনের কর্মবিরতি

প্রকাশ: ১০ জুলাই, ২০২৪ ১০:০৩ : পূর্বাহ্ণ

 

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর অফিসার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে সর্বজনীন পেনশন বিধিমালা-২০২৩ এর ‘প্রত্যয়’ স্কিম থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের অন্তর্ভুক্তি প্রত্যাহার এবং ইউজিসি কর্তৃক সুপারিশকৃত ‘কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সরাসরি নিয়োগ, পদোন্নতি/পদোন্নয়ন সংক্রান্ত অভিন্ন নীতিমালা’ বাতিলের দাবিতে টানা ৭ম দিনের মতো পূর্ণদিবস কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।

 

৯ই জুলাই (মঙ্গলবার) ২০২৪ খ্রি. সকাল ৯:০০ ঘটিকা বিকাল ৫:০০ ঘটিকা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল প্রাঙ্গণে এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। উক্ত কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশনের প্রধান উপদেষ্টা ও চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রকৌশলী সৈয়দ মোহাম্মদ ইকরাম। এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. মকবুল হোসেন।

 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জনাব মো. জিলহাজ উদ্দিন। উক্ত সর্বাত্মক কর্মসূচিতে চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের সকল নেতৃবৃন্দ ও সংবিধিবদ্ধ দপ্তরসমূহের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাবৃন্দসহ এসোসিয়েশনের প্রায় ১৯০ জন কর্মকর্তা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

 

এ সময় বক্তারা সর্বজনীন পেনশন বিধিমালা-২০২৩ এর ‘প্রত্যয়’ স্কিম থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের অন্তর্ভুক্তি প্রত্যাহার এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক সুপারিশকৃত ‘কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সরাসরি নিয়োগ, পদোন্নতি/পদোন্নয়ন সংক্রান্ত অভিন্ন নীতিমালা’ বাতিলসহ বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন কর্তৃক ১২ দফা দাবি সংযোজনপূর্বক নীতিমালা পুনরায় সুপারিশের জোর দাবি জানান। একইসাথে উক্ত দাবি দুটি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত পূর্ণ কর্মবিরতির চলমান কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

 

Print Friendly and PDF