চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪ , ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওটিডিএমসি আয়েজিত ৭ দিন ব্যাপি ওড়িশী নৃত্যকর্মশালায়-অংশগ্রহনকারীদের সনদপত্র বিতরণ ও ওড়িশী নৃত্যসন্ধ্যা

প্রকাশ: ২০ জুন, ২০২৪ ১১:০৭ : অপরাহ্ণ

 

আজ চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি গ্যালারি হলে বাংলাদেশের অন্যতম উচ্চাঙ্গ নৃত্যশিক্ষা প্রতিষ্ঠান ওড়িশী অ্যান্ড টেগোর ডান্স মুভমেন্ট সেন্টার (ওটিডিএমসি), চট্টগ্রাম আয়োজিত ৭ দিন ব্যাপি ওড়িশী কর্মশালার সমাপনী দিনে প্রশিক্ষনার্থীদের সনদপত্র প্রদান করা হয়।

 

উক্ত অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাট্যকর্মী ও নাট্য সংগঠক, জেলা শিল্পকলা একাডেমির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক জনাব সাইফুল আলম বাবু, নাট্যকার ও নাট্যনির্দেশক কবি সনজীব বড়ুয়া, প্রতিষ্ঠানের সাধারণ সম্পাদক নাট্যনির্দেশক, অধ্যাপক ড. কুন্তল বড়ুয়া এবং পশ্চিমবঙ্গের প্রখ্যাত ওড়িশী নৃত্যশিল্পী, সুখ্যাত শিক্ষক এবং কর্মশালার প্রশিক্ষক ড. পম্পি পাল।

 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ওড়িশী নৃত্যশিল্পী প্রমা অবন্তী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর মাননীয় উপাচার্য ড. অনুপম সেন। সভাপতির ভাষনে তিনি বলেন- “প্রমা অবন্তী ও তাঁর প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের নৃত্যচর্চাকে অনন্য পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। ৭দিন ব্যাপি এই কর্মশালায় যাঁরা অংশগ্রহণ করেছেন, তাঁরা ভবিষ্যতে বাংলাদেশে শুদ্ধ নৃত্যচর্চা প্রচার, প্রসারিত করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছি”।

 

 

প্রশিক্ষক ড. পম্পি পাল বলেন- “প্রমা অবন্তী তাঁর শিক্ষার্থীদের শুদ্ধ ওড়িশী নৃত্যানুশীলন করিয়েছেন। আমার বিশ্বাস এঁরা পৃথিবীর যেকোন জায়গায় এই নৃত্যকে যোগ্যতার সঙ্গে উপস্থাপন করতে সক্ষম হবে”। মোট ১২০ জন শিক্ষার্থী কর্মশালায় প্রশিক্ষণ গ্রহন করেছন।

 

কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীবৃন্দ ৩টি দলে বিভক্ত হয়ে ৩টি ওড়িশী নৃত্যের আইটেম যথাক্রম- গুরুবন্দনা, সরস্বতী বন্দনা এবং গুরু বন্দনা পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক হিসেবে ছিলেন নাট্যজন, অভিনেত্রী ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচিত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কঙ্কন দাশ।

আবহ প্রক্ষেপক হিসেবে ছিলেন অভ্র বড়ুয়া ও সুমেধ বড়ুয়া।

 

Print Friendly and PDF