চট্টগ্রাম, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪ , ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নিম ও তুলসী পাতার মধ্যে কোনটি বেশি উপকারী, যা বলছেন পুষ্টিবিদ

প্রকাশ: ১১ নভেম্বর, ২০২৩ ১০:১৩ : পূর্বাহ্ণ

 

নিম ও তুলসী পাতার গুণের কথা প্রায় সবাই জানেন। দুটি পাতাই মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। এতে অগণিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যা মানুষের ছোট-বড় বিভিন্ন রোগকে দূরে রাখতে সহায়তা করে। তবে এই দুই পাতার মধ্যেও কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। এ নিয়েই শুরু হয় তর্ক-বিতর্ক।

এমন অনেকেই আছেন যার কাছে নিমপাতা উপকারী। আবার কেউ কেউ তুলসীকে খাদ্যগুণে এগিয়ে রাখেন। কিন্তু দুটি পাতার উপকারিতার মধ্যেও কিছুটা ব্যবধান রয়েছে। নিম ও ‍তুলসী পাতার উপকারিতা নিয়ে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন কলকাতা শহরের বিশিষ্ট পুষ্টিবিদ শর্মিষ্ঠা রায় দত্ত। এবার তাহলে নিম ও তুলসীর উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

গুণের রাজা নিম : নিম পাতায় প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যা মানবদেহের প্রদাহের প্রকোপ প্রশমিত করতে সহায়তা করে। নিয়মিত এই পাতা সেবনে একাধিক গুরুতর রোগ থেকে এড়িয়ে চলা যায়। একই সঙ্গে ব্লাড সুগারকে বিপদসীমার নিচে নামিয়ে আনতেও সহায়তা করে নিম পাতা। এছাড়া ত্বক থেকে পেটের সমস্যায়ও কাজ করে বলে জানিয়েছেন পুষ্টিবিদ শর্মিষ্ঠা।

 

তুলসীও কম নয় : গুণের দিক থেকে কোনো অংশে পিছিয়ে নেই তুলসী। ভিটামিন-এ, সি, ই, কে, আয়রন, ক্যালশিয়াম ও পটাশিয়ামের মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে তুলসী পাতায়। এ কারণে নিয়মিত তুলসী পাতা খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো থাকে। এছাড়া কোলেস্টেরল ও ব্লাড সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতেও উপকারী।

 

নিম না তুলসী, কোনটা বেশি উপকারী : পুষ্টিবিদ শর্মিষ্ঠার কথায়, দুটির মধ্যে কোনো একটিকে এগিয়ে রাখা সম্ভব নয়। কেননা, দুটি পাতাই খাদ্যগুণে অনন্য। এদের মধ্যে শরীরের জন্য উপকারী উপাদান রয়েছে। এ জন্য নিম ও তুলসী, দুই পাতাই নিয়ম করে খাওয়া যেতে পারে। এতে ক্যানসারসহ একাধিক ঘাতক রোগ প্রতিরোধে উপকার পাবেন। এছাড়া কিছু ক্রনিক অসুখও নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

নিম খাওয়ার পদ্ধতি : একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ দিনে ৩-৫টি কচি নিম পাতা চিবিয়ে খেতে পারেন। চিবিয়ে খেতে যদি সমস্যা হয়, তাহলে পানি দিয়ে গিলেও খেতে পারেন। দিনের শুরুতে সকালে খালি পেটে খেলে বেশি উপকার মিলবে।

তুলসী খাওয়ার পদ্ধতি : ১০ বছরের কম বয়সীদের দিনে ২টির বেশি তুলসী খাওয়ানো ঠিক নয়। তবে প্রাপ্ত বয়স্করা দিনে ৪-৫টি তুলসী পাতা খেতে পারেন। তুলসী পাতা নিমের মতো চিবিয়ে এবং সকালে খালি পেটে খেতে পারেন।

 

 

সুত্র: চ্যানেল২৪

Print Friendly and PDF