চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সব কিছুর দাম নিজ থেকে বেড়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ২৬ অক্টোবর, ২০২২ ৬:১৬ : অপরাহ্ণ

দেশের বাজারে সরকার কোনো কিছুর দাম বাড়ায়নি, নিজে থেকে বেড়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বুধবার (২৬ অক্টোবর) শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের বহুতল মাল্টি পারপাস ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও শেখ রাসেলের ৫৯তম জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য, রাশিয়ান তেল সবাই কিনতে পারে না। তেলের দাম বেড়ে গেলে সব কিছুর দাম বাড়ে। সরকার কোনো কিছুর দাম বাড়ায়নি, নিজের থেকে দাম বেড়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, সারের দাম তিন গুণ হয়েছে। তেলের দাম তিন গুণ হয়েছে। আমরা তো বিষয়গুলো দেখছি। যুক্তরাজ্যের মতো দেশের মানুষ একবেলা খাবার খাচ্ছে, খরচ বাঁচানোর জন্য। কাজেই, আমাদের আগে থেকেই সতর্ক থাকতে হবে।

বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করছে দাবি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,  সিলেটে বন্যা হলো, সবাই ঝাঁপিয়ে পড়ল, কোনো কিছুতেই বিএনপিকে আমরা দেখিনি। জিয়ার আমল থেকে এখন পর্যন্ত আমরা দেখেছি কিভাবে তারা লুটপাট করেছে, ক্ষমতার রাজনীতি করেছে।

জাহিদ মালেক বলেন, আজকে আমি আনন্দিত, আমরা আরেকটি ভবন উদ্বোধন করতে পেরেছি। প্রতিনিয়ত আমরা চেষ্টা করছি এই হাসপাতালকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার। তার জন্য যা-যা লাগে ডাক্তার, নার্স, যন্ত্রপাতি আমরা ব্যবস্থা করছি। ভবিষ্যতেও করব।

তিনি বলেন, এই ইনিস্টিটিউটটি শেখ রাসেলের নামে করা হয়েছ, আমি মনে করি এটি অত্যন্ত ভাল হয়েছে। হাসপাতাল নিয়ে লোকে প্রশংসা করে। আমরা চাই চিকিৎসার মান আরও বাড়ুক। এখান পর্যন্ত প্রায় ৫০০টি অপারেশন করা হয়েছে। অনেক ধরনের জটিল অপারেশন হয়েছে।

মন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে, আপনাদের কাজ আরও বাড়াবেন। বিশেষায়িত চিকিৎসা আছে বলেই লোকে বিদেশে যায়, এটা অস্বীকার করার উপায় নাই। এর জন্য দোষারোপ করা যাবে না। দেশে চিকিৎসা নেই বলেই, তারা বিদেশে যাচ্ছে। আজকে বিশেষায়িত চিকিৎসা হচ্ছে গ্যাস্ট্রোলিভার, চক্ষু হাসপাতাল, বার্ন এন্ড প্লাস্টিক ইন্সটিটিউটে লোকজন আসছে৷এখন দেশে চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত হয়েছে।

আটটি বিভাগে বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণাধীন জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ওখানে হাসপাতালগুলো চালু হলে লোকজন বাড়ি থেকে চিকিৎসা নিতে পারবে। ঢাকায় আসা লাগবে না। ৬টি নতুন মেডিকেল কলেজ তৈরি হয়ে গেছে। চিকিৎসা ব্যবস্থায় অনেক উন্নতি হয়েছে, আরও হবে। সরকারি ওষুধ কারখানার একটা বড় প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। জমি অধিগ্রহণ চলছে। ৫০ বছরের পুরোনো কারখানা দিয়ে কাজ হচ্ছে না।

Print Friendly and PDF