চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ , ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছয়ের দশকে কেমন ছিল কলকাতা টু লন্ডনের বাস যাত্রা?

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৪:০৭ : অপরাহ্ণ

“এস প্ল্যানেড, চিড়িয়াখানা, সল্টলেক……….” হাওড়া স্টেশন চত্বর থেকে বেরিয়ে পড়তেই এই প্রকার একটা চিৎকার রোজকার যাত্রীদের যেন সঙ্গী হয়ে যায়। বাসে ওঠার তাড়াহুড়োয় ছুটতে থাকে নিত্যযাত্রীরাও। শুধুই হাওড়া নয়, কলকাতার অধিকাংশ বাস স্টপেই খানিকটা এমন পরিবেশ একটা অতিসাধারণ ব্যাপার। কনডাকটরদের এমন চিল চিৎকার প্রায় প্রতিদিনই কানে তালা ধরায় সাধারণ মানুষের। কিন্তু ভেবে দেখুন, এই বাসগুলোর মধ্যেই খানিকটা অন্যরকম সজ্জার একটি বাস থেকে ডাক লন্ডন যাওয়ার। না মোটেই রূপকথা নয় এটা। কারণ, এই ডাকটাই আপনাকে নিমিষে ভাসিয়ে নিয়ে ছয়ের দশকে।

তিলোত্তমায় ব্রিটিশদের রমরমা। এক বাসেই কলকাতা থেকে লন্ডন চলছেন শহরের ভিনদেশি সাদা চামড়ার মানুষরা। প্রায় আট হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ওই সাত সমুদ্র, তেরো নদীর পাড়ের  দেশে পৌঁছে যেত এই বাস। নাম তার অ্যালবার্ট। ডবল ডেকার বাস, বিলাসিতা ভরপুর। কিছুরই যেন অভাব নেই। তৎকালীন যুগের একেবারে চলন্ত হোটেল। যা আজও মানুষের কাছে আশ্চর্য। অবশ্য, ইতিহাসের পাতা খুঁড়ে মানুষের কাছে মাঝে মধ্যেই উঁকি দিয়ে দিত অ্যালবার্ট। কিন্তু, অনেকের কাছে বিশেষ তথ্য প্রমাণ না থাকায় অ্যালবার্টের অস্তিত্ব নিয়ে অনেকটাই দ্বন্ধ ছিল সকলের মনে।

তবে এবার যেন সেই সকল দ্বন্ধের সমাপ্তি ঘটল নেটমাধ্যমের হাত ধরেই। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে ভাইরাল হওয়া একটি ছবিতে দেখা গেছে, বাস থেকে কিছু যাত্রী ওঠা-নামা করছেন। এমনকী গন্তব্যের স্থানে সেই বাসে লেখা রয়েছে, লন্ডন-ক্যালকাটা-লন্ডন। চক্ষু চড়কগাছে উঠে যাওয়া এই ছবি দেখে বেশ হতবাক নেটিজেনরা।

জানা গেছে, ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, পশ্চিম জার্মানি, অস্ট্রিয়া, যুগোস্লাভিয়া, বুলগেরিয়া, তুরস্ক, ইরান, আফগানিস্তান, পশ্চিম পাকিস্তান হয়ে ভারতে ফিরে আসত অ্যালবার্ট। এরপর তৎকালীন  বাংলা রেঙ্গুন হয়ে থাইল্যান্ড ও তৎকালীন মালয়, সিঙ্গাপুর হয়ে পৌঁছে যেত অস্ট্রেলিয়া। প্রায় ১৫ বার কলকাতা থেকে লন্ডন সফর করেছিল ওই বাসটি। এক সময় টাইটেনিককে বলা হত ‘স্বপ্নের জাহাজ’। অন্যদিকে, অ্যালবার্টও নিজের জৌলসে কিছু কম ছিল না।

জানা যায়, খাওয়া থেকে শোয়া সমস্ত রকমের বিলাসিতার সুবিধা ছিল এই বাসে। দেশের পর দেশ ঘুরতে ঘুরতে লন্ডনে পৌঁছে যেত অ্যালবার্ট যেই দৃশ্য হয় তো স্বর্গের থেকে কম নয়। তৎকালীন সময়ে লন্ডন থেকে কলকাতা আসার জন্য সাত হাজার ৮৮৯ টাকা খরচ হত প্রত্যেক যাত্রীদের।

Print Friendly and PDF