চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ , ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পেকুয়া রাজাখালীতে পুকুরের ময়লা আবর্জনা-দূষনকৃত পানি চলাচলে বাধা দেওয়ায়, এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশ: ২ জানুয়ারি, ২০২২ ৩:২৮ : অপরাহ্ণ

মোঃ ইকবাল হাসান কক্সবাজার:
গতকাল ১জানুয়ারী শনিবার সকাল সাড়ে দশটায়, কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের(৬নং ওয়ার্ড) বকশিয়া-ঘোনা পাড়া এলাকায় দুই থেকে তিনটি বাথরুম ব্যাবহারের ময়লা- নর্দমার আবর্জনা-দূষনকৃত পানি চলাচলে বাধা দেওয়ায় নুরুল হোসেন নামের এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে জখম করেছে একই এলাকার স্থানীয় প্রতিবেশী ফজল করিম ও তার পরিবারের সদস্যরা।
ঘটনায়, আহত নুরুল হোসেন জানান আমার প্রতিবেশী ফজল করিমের বাড়ির পাশে ব্যাবহারের অনুপযোগী একটি পুকুরের পাড়ে বেশকয়েকটি খোলামেলা বাথরুম ব্যাবহারের ময়লা পানির সংযোগ আছে। এবং আজ সকালে সাড়ে দশটার দিকে সেই বাথরুম ব্যাবহারের ময়লা আবর্জনা কাঁদা পানি মেশিন দিয়ে আমাদের ব্যাবহারের পুকুরে ফেলতে দেখে আমি তাদেরকে নিষেধ করিলে,ক্ষিপ্ত হয়ে আশরাফ আলীর ছেলে,ফজল করিম(৩১) ও তার পিতা,আশরাফ আলী।

চাচা মোকতার আহাম্মদ সহ (৪-৫ জন)দেশীয় অস্ত্র- ধারালো দ্যা-কিরিচ ও হাতুড়ি (লাটি-সোটা) নিয়ে আমার উপর আক্রমণ করে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে (কাঁদাপুকুরে )ফেলে দিলে নিজেকে বাঁচানোর জন্য চিৎকার(কান্নাকাটি) করতে শুনিলে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে দৌড়ে এসে আমাকে উদ্ধার করেন এবং দ্রুত চিকিৎসার জন্য পেকুয়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। আহত নুরুল হোসেন আরো জানান হামলাকারী ফজল করিম একজন মাদক-সেবনকারী, জলদস্যু ও সন্ত্রাসী।

তাঁদের এই হামলা পুর্বের পরিকল্পিত আমাকে প্রানে মেরে ফেলতে আজকে এই আক্রমণ। তাই আমার উপর এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
আহত নুরুল হোসেনের ছোট ভাই পেকুয়া থানার ডিউটি অফিসার,এস আই খায়ের উদ্দিন ভুঁইয়া (নিরস্ত্র)এর কাছে ঘটনা সম্পর্কে প্রাথমিক ভাবে জানালে তিনি বলেন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং ঘটনার সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

Print Friendly and PDF