চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ , ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধির দাবি এফবিসিসিআই সভাপতির

প্রকাশ: ৭ জানুয়ারি, ২০২২ ৩:২৫ : অপরাহ্ণ

অদূর ভবিষ্যতে দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর চট্টগ্রাম বন্দরের ওপর চাপ কয়েক গুণ বাড়বে এবং এই চাপ মোকাবিলায় অবিলম্বে বন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধির আহ্বান জানালেন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) বন্দর ও জাহাজবিষয়ক এফবিসিসিআই স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় এ আহ্বান জানান প্রধান অতিথি মো. জসিম উদ্দিন।
তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বাড়লে দেশে ব্যবসার খরচ কমবে অন্তত ৫ শতাংশ। একই সঙ্গে দেশে বিনিয়োগের আগ্রহ বাড়বে বিদেশি উদ্যোক্তাদের।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরের পাশাপাশি অন্যান্য অর্থনৈতিক অঞ্চলে উৎপাদন শুরু হলে চট্টগ্রাম বন্দরের ওপর চাপ কয়েক গুণ বাড়বে। তাই এখনই বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানো জরুরি।

এ সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পণ্যবাহী যানের গতি বাড়ানোর বিষয়টি উল্লেখ করে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, বর্তমানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পণ্যবাহী যানবাহনের গতি ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। এই গতি দ্বিগুণ হলে রফতানির প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বাড়বে ৬ শতাংশ।

রাসায়নিক খালাসে দীর্ঘসূত্রিতার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানিকৃত রাসায়নিক খালাসের জন্য আলাদা পরীক্ষা করাতে হয়। চট্টগ্রাম কাস্টমসে পর্যাপ্ত ল্যাবরেটরি নেই। পরীক্ষা করাতে ব্যবসায়ীদের ১০ থেকে ১২ দিন লেগে যায়। বন্দরসংক্রান্ত এ সব সমস্যা সমাধানে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও উল্লেখ করেন এফবিসিসিআই সভাপতি।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআইয়ের সহসভাপতি মো. আমিন হেলালী, স্ট্যান্ডিং কমিটির ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এ এম মাহবুব চৌধুরী, কমিটির চেয়ারম্যান মো. পারভেজ সাজ্জাদ আকতার।

সভায় আমদানি-রফতানির গতি বাড়াতে কাস্টমস ও বন্দর কর্মকর্তাদের সহযোগিতার প্রত্যাশা করেন স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্যরা।

Print Friendly and PDF