চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ , ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিয়ে দেয়ার নামে স্ত্রীর প্রেমিককে ডেকে নিয়ে হত্যা

প্রকাশ: ১ নভেম্বর, ২০২১ ১২:৪৮ : অপরাহ্ণ

স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বাধা হয়ে দাঁড়ানোর কারণে বিয়ের নামে সজীবকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেন বলে স্বীকার করেছেন নুরুল আমিন। রবিবার (৩১ অক্টোবর) নুরুল আমিন ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বিষয়টি জানিয়েছেন পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর ইনচার্জ পুলিশ সুপার নাইমা সুলতানা।

তিনি জানান,  গত ২৭ অক্টোবর চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলী থানার উত্তর কাট্টলী টোল রোডের পূর্বদিকে স্থানীয় সেকান্দারের কৃষিজমিতে একজনের লাশ দেখে থানায় খবর দিলে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে পরিচয় মেলে লাশটি নোয়াখালীর চাটখিল থানার ভিমপুর আমজাদ বেপারি বাড়ির আব্দুল হক স্বপনের ছেলে মো. সজীবের (২৭)।

জবানবন্দিতে নুরুল আমিন স্বীকার করে যে, আমার (নুরুল আমিন) সঙ্গে ঝগড়া করে চট্টগ্রাম আসার পথে পিকআপচালক সজীবের সঙ্গে পরিচয় হয় আমার স্ত্রী ফারহানার (ছদ্মনাম)। পরিচয়ের সূত্রে দুই জনের বন্ধুত্ব থেকে প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়। কয়েক মাসের মধ্যে ফারহানাকে বিয়ে করে স্ত্রী হিসেবে পেতে চান সজীব । অন্যদিকে স্বামী নুরুল আমিন স্ত্রী ফারহানাকে সংসারে ফেরাতে চান। ফারহানা নগরীর একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতো। এতে বাধা হয়ে দাঁড়ান সজীব। তাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন নুরুল। প্রথমে ব্যর্থ হলেও দ্বিতীয় দফায় স্ত্রীর সঙ্গে বিয়ে দিতে ডেকে সহযোগীদের নিয়ে সজীবকে হত্যা করেন। এ ঘটনায় সজীবের ভাই ইকবাল হোসেন মামলা করলে তদন্ত করতে গিয়ে এসব তথ্য পায় পুলিশ।

Print Friendly and PDF