চট্টগ্রাম, সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ , ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘ইত্যাদি’ এবার চট্টগ্রামে

প্রকাশ: ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ৮:১০ : অপরাহ্ণ

দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’। প্রতি তিন মাস পর এটির নতুন পর্ব প্রচারিত হয় বিটিভিতে। ঈদ উৎসবে থাকে অনুষ্ঠানটির বিশেষ পর্ব। ‘ইত্যাদি’র সবচেয়ে চমকপ্রদ দিক হল, দেশের নানা প্রান্তের ঐতিহাসিক স্থানগুলোতে এই অনুষ্ঠানের সেট নির্মাণ ও দৃশ্যধারণ করা হয়। তুলে ধরা হয় সেসব স্থানের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, শিক্ষা ও সংস্কৃতিসহ নানা দিক।

কিন্তু গত বছর করোনার কারণে এই ধারাবাহিকতাটা রক্ষা করতে পারেননি ‘ইত্যাদি’র রচয়িতা, পরিচালক ও উপস্থাপক হানিফ সংকেত। মহামারি এই ভাইরাস আতঙ্কে আউটডোরে গিয়ে শুটিং করতে পারেননি তিনি। যেহেতু দীর্ঘ সময় ধরে শুটিংয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। তাই পুরনো কিছু পর্বের সংকলন দেখিয়েই দুই ঈদে দর্শকদের সন্তুষ্ট রাখতে হয়েছে তাকে।

তবে করোনার সংক্রমণ কিছুটা কমে যাওয়ায় এবং শুটিং শুরু হওয়ায় আবারও ‘ইত্যাদি’ তার চিরচেনা ঢঙে ফিরে গেছে। তাইতো এবার তুমুল জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় অবস্থিত সুনীল সাগরের কোলে গড়ে ওঠা এক অনন্য সুন্দর নান্দনিক স্থাপত্য বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে।

শিল্পী, কলাকুশলী ও আমন্ত্রিত দর্শকসহ সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনায় রেখে দর্শকদের মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করা হয় সেখানে। ঢাকার বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের সঙ্গে সাদৃশ্য রেখে নির্মাণ করা আলোকিত মঞ্চের সামনে আমন্ত্রিত দর্শকরা ইত্যাদির মাস্ক পরে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে গত ১৬ জানুয়ারি উপভোগ করেন ‘ইত্যাদি’র নান্দনিক সব পর্ব। অনুষ্ঠান চলে সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত।

টেলিভিশন দর্শকদের জন্য ‘ইত্যাদি’র নতুন এ পর্বটি বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে একযোগে প্রচারিত হবে আগামী ২৯ জানুয়ারি, শুক্রবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে। এদিন যারা মিস করবেন, তাদের জন্য অনুষ্ঠানটি পুনঃপ্রচার করা হবে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টা ৪০ মিনিটে। হানিফ সংকেতের ‘ইত্যাদি’ প্রযোজনা করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড।

নব্বইয়ের দশকে শুরু হওয়া ‘ইত্যাদি’ বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অনুষ্ঠান হিসাবে বহু আগেই স্থান করে নিয়েছে। প্রায় ২৭ বছর ধরে বিটিভিতে প্রচারিত হচ্ছে এই ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানটি। এর প্রধান আকর্ষণীয় দিক, সমাজের নানা অসংগতিকে বিদ্রুপ ও রসময় করে উপস্থাপন করা। এছাড়া নানি-নাতির পর্ব এবং বাংলাদেশে বসবাসরত বিদেশিদের নিয়ে একটি বিশেষ পর্ব এর বিশেষ আকর্ষণ।

Print Friendly and PDF