চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০ , ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সেলিমপুত্রের ঘরে অস্ত্র-মদসহ নানা অবৈধ সরঞ্জাম, ওয়্যারলেস নেটওয়ার্কে পুরান ঢাকা নিয়ন্ত্রণ!

প্রকাশ: ২৬ অক্টোবর, ২০২০ ৬:২৬ : অপরাহ্ণ

ঢাকার আলোচিত সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে এরফানের বাসায় অভিযান চালিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র, মদ, ওয়াকিটকিসহ নানা অবৈধ সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

সোমবার বেলা ১২টা থেকে চকবাজারের দেবিদাস লেনের বাসায় এ অভিযান শুরু করে র‌্যাব। বিকাল পর্যন্তও অভিযান চলছিল।

এরআগে ধানমন্ডিতে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ও ঢাকা-৭ আসনের এমপি হাজী সেলিমের ছেলেসহ দুজনকে আটক করে র‌্যাব।

অভিযান আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ না হলেও যেসব অবৈধ সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে তারমধ্যে রয়েছে- ৩৮টি ওয়াকিটকি ও ৫টি ভিপিএস মেশিন, যা দিয়ে ৫ থেকে ১০ কিলোমিটার নেটওয়ার্কে কথা বলা যায়। এছাড়া পুলিশের ১টি হ্যান্ডক্যাপ, ১টি একনলা বন্দুক, ১টি বিদেশি পিস্তল।

পিস্তলের ম্যাগজিনে গুলি লোড করা ছিল। ১ টি ব্রিফকেস যা ভিআইপি নিরাপত্তায় ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও বিয়ার ক্যান ১২টি ও ১২টা বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়েছে।

সাদা রঙের নয়তলা ওই ভবনের তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় ইরফান সেলিম থাকেন জানিয়ে র‌্যাবের ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, সেখানে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি, একটি এয়ারগান, ৩৭টি ওয়াকিটকি, একটি হাতকড়া এবং বিদেশি মদ ও বিয়ার পাওয়া গেছে।

আগ্নেয়াস্ত্রের কোনো লাইসেন্স নেই। আর ওয়াকিটকিগুলোও অবৈধ, কালো রঙের এসব ওয়াকিটকি শুধু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ব্যবহার করতে পারেন।

সরেজমিনে বাড়ির ভিতরে ঘুরে র‌্যাব কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, হাজী সেলিমের ছেলে পুরান ঢাকা তার নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং তথ্য সংগ্রহের জন্য সম্পূর্ণ ওয়্যারলেস নেটওয়ার্কের মধ্যে রেখেছেন।

এজন্য তিনি অবৈধভাবে ভিপিএস ডিভাইস ব্যবহার করতেন। এই ডিভাইস আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ট্র্যাক করতে পারেন না। সরকারি অনুমোদ ছাড়াই তিনি এই ভিপিএস নেটওয়ার্কিং সিস্টেম করেছিলেন।

Print Friendly and PDF

———