চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০ , ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ক্ষুধার সূচকে ভারতের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ১৮ অক্টোবর, ২০২০ ১১:০৭ : পূর্বাহ্ণ

‘২০২০ সালের মধ্যে বিশ্বের ১৩২ মিলিয়নের বেশি মানুষ ক্ষুধার্ত হয়ে পড়বে’- গেল জুলাইয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক টেড্রস আধানোম গ্যাব্রিয়েসুস এমন পূর্বাভাস দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশ, বিশেষ করে আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশ এখনো বছরের পর বছর সংঘাত এবং অন্যান্য মানবিক সংকটে বিপর্যস্ত। কোভিড-১৯ এ সংকটগুলোকে আরো অনেক বাড়িয়ে তুলেছে।’

এবার বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ১০৭টি দেশের মধ্যে ৭৫তম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। তবে এই সূচকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ভারতের। ৯৪তম স্থানে রয়েছে বৃহৎ জনসংখ্যার প্রতিবেশী এই দেশটি।

অন্যদিকে ক্ষুধা সূচকে ভারতের চেয়ে শুধু বাংলাদেশই নয়, মিয়ানমার এমনকি পাকিস্তানও ভালো অবস্থানে রয়েছে। আর মানুষের মুখে খাবার তুলে দেয়ার ক্ষেত্রে বিশ্বের প্রথম সারির দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে এশিয়ার আরেক পরাশক্তি চীন।

গেল শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) চলতি বছরের গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী, বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারতের মতো বাংলাদেশ, মিয়ানমার ও পাকিস্তানও ‘গুরুতর’ শ্রেণিতে রয়েছে। তা সত্ত্বেও তালিকায় ভারতের চেয়ে ভালো অবস্থানে আছে ওই তিন দেশ। বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে মিয়ানমার ৭৮তম ও পাকিস্তান ৮৮তম স্থানে রয়েছে।

উপমহাদেশের এ চারটি দেশ ‘গুরুতর’ শ্রেণিতে থাকালেও তুলনামূলক ভালো অবস্থানে রয়েছে নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। ‘মডারেট’ শ্রেণিতে রয়েছে এ ‍দুটি দেশ। বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে নেপাল ৭৩তম ও শ্রীলঙ্কা রয়েছে ৬৪তম অবস্থানে।

এই সূচকে বিশ্বের যে ১৭টি দেশ সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে তাদের মধ্যে উপরের সারিতে চীন। এছাড়াও বেলারুশ, ইউক্রেন, তুরস্ক, কিউবা ও কুয়েত ক্ষুধা ও অপুষ্টি মোকাবিলায় উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছে।

গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকায় দেখা যাচ্ছে, ভারতের জনসংখ্যার ১৪ শতাংশ অপুষ্টির শিকার। ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে ৩৭.৪ শতাংশের বৃদ্ধির হার স্বাভাবিকের থেকে কম। ১৭.৩ শতাংশ শিশুর ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে কম। ৫ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুমৃত্যুর হার ৩.৭ শতাংশ।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের বিশ্ব ক্ষুধা সূচকেও প্রতিবেশী দেশ ভারতের অবনমন হয়েছিল। ওই বছরের ক্ষুধা সূচকে ১০২তম স্থানে ছিল ভারত। অপরদিকে ক্ষুধা মেটানোর তালিকায় ভারতের চেয়ে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও চীন। গেল বছরের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৮৮, পাকিস্তান ৯৪, নেপাল ৭৩ আর চীন ছিল ২৫তম স্থানে।

বিশ্ব ক্ষুধা সূচকের তালিকায় ১ নম্বর অবস্থানে থাকা ১৭টি দেশের মধ্যে বোলারুশ, বসনিয়া, হার্জেগোভিনা, চিলি, কুয়েত, তুরস্ক ও কুয়েতের নাম।

Print Friendly and PDF

———