চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০ , ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লোহাগাড়ার ৩ ইউপিতে নির্বাচন: কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম, ব্যালট যাবে ভোরে

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর, ২০২০ ৬:১৪ : অপরাহ্ণ

আলাউদ্দিন, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 

রাত পোহালেই ভোট। ইতিমধ্যে লোহাগাড়া ৩ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠানের সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ইতিমধ্যেই বিভিন্ন কেন্দ্রে অবস্থান করছেন।শুধুমাত্র ব্যালট পেপার ভোটগ্রহণের দিন ভোরে কেন্দ্রে পাঠানো হবে।

১৯ অক্টোবর (সোমবার) বিকেলে ৪ টার দিকে প্রিসাইডিং কর্মকর্তার নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগিতায় সব কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পৌঁছানো হচ্ছে বলে সিটিজি টাইমসকে জানিয়েছেন লোহাগাড়া উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. সাদ্দাম হোসেন রুমান খান ।

২০ অক্টোবর ( মঙ্গলবার ) সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে এখন ভোটাররা অপেক্ষায় আছেন ভোট দেওয়ার।

এর আগে, দিনভর আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যদের টহল দিতে দেখা যায়। সদর ইউনিয়নের সকল এলাকায় দেখা গেল বিজিবি সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

নির্বাচনকে ঘিরে এলাকায় বিরাজ করছে উৎসব মুখর পরিবেশ। কে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হচ্ছেন। এই বিষয়টি নিয়ে মানুষের মাঝে চলছে তুমুল আলোচনা।

ভোটার সংক্রান্ত তথ্য:-
লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাচন কমিশনের অফিস সূত্রে জানা যায়, তিন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৬৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন এরমধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৫ জন, সংরক্ষিত মহিলা প্রার্থী ৩১ জন এবং সাধারণ সদস্য প্রার্থী ১১৯ জন।

এর মধ্যে ভোটার সংখ্য হল আমিরবাদ ইউনিয়নে পুরুষ ও মহিলা ভোটার ২৮ হাজার ৯৪৩ জন। ভোটকেন্দ্র ৯ টি।
আধুনগর ইউনিয়নে পুরুষ ও মহিলা ভোটার ১৫ হাজার ৫৫৬ জন। ভোটকেন্দ্র ৯ টি। লোহাগাড়া সদর ইউনিয়নে পুরুষ ও মহিলা ভোটার ২৩ হাজার ১৬৯ জন। ভোটকেন্দ্র ১০ টি।

প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন যারা:-
আমিরাবাদ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে এস এম ইউনুচ (নৌকা) মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী (মোটর সাইকেল), মাহমুদুল হক পিয়ারু (টেবিল ফ্যান), মোহাম্মদ ইলিয়াছ (লাঙ্গল), আবদুল মালেক (আনারস) ও মো. নুরুল আবচার (হাত পাখা)।

লোহাগাড়া সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোহাম্মদ নুরুছফা (নৌকা), মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সিকদার (ধানের শীষ), মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন (আনারস) ও আনোয়ার হোসেন (লাঙ্গল)।

আধুনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মুহাম্মদ নুরুল কবির (নৌকা), মো. আবু নাসের চৌধুরী (ধানের শীষ), মুহাম্মদ আইয়ুব মিয়া (টেবিল ফ্যান), মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন (আনারস) ও মাহামুদুল হক (অটোরিক্সা) মার্কায় লড়ছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা সাদ্দাম হোসেন রুমান খান সিটিজি টাইমসকে বলেন, ‘ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশের স্বার্থে প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মীরা সার্বক্ষণিক মাঠে রয়েছেন।

ভোটের দিন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে সৃষ্টি না হয় সেজন্য নির্বাচন কমিশন যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এছাড়া ভোট কেন্দ্র এবং ভোটারদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি এবং আনছার বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। প্রতিটি ইউনিয়নে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন।

তিন ইউনিয়নে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব থাকবেন যারা :-
আমিরাবাদ ইউনিয়নে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদ্দুল্লাহ কায়সার, লোহাগাড়া সদর ইউনিয়নে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম জিহান সানজিদা এবং আধুনগর ইউনিয়নে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কৌশিক আহম্মদ খন্দকার দায়িত্বে থাকবেন।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা : –
সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্ল্যা সিটিজি টাইমসকে বলেন, ‘নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে কোথাও কোনোভাবে বিশৃঙ্খলা যেন না হয় এই বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ তৎপর রয়েছে। স্বচ্ছ এবং অবাধ নির্বাচন উপহার দিতে ৪শ পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে।’

তিনি সিটিজি টাইমসকে আরো বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে আমরা তিন স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করেছি । স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ভোটকেন্দ্রের বাইরে বিজিবি/পুলিশের টিম সংশ্লিষ্ট ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তায় সতর্কতাবস্থায় দায়িত্ব পালন করবে।

Print Friendly and PDF

———