চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ , ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চতুর্থ দফায় ওসি প্রদীপ রিমান্ডে

প্রকাশ: ৩১ আগস্ট, ২০২০ ৩:৪৪ : অপরাহ্ণ

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় তৃতীয় দফায় রিমান্ড শেষে ওসি প্রদীপ কুমার দাশের চতুর্থ দফায় রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়েছে।

সোমবার (৩১ আগস্ট) ২ টার দিকে ওসি প্রদীপকে কক্সবাজার আদালতে আনা হয়। ওখানে কক্সসবাজারের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে চতুর্থ দফায় রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়।

র‌্যাব সূত্র জানিয়েছে, ইতিমধ্যে এ মামলায় প্রধান আসামি লিয়াকত ও এপিবিএনের ৩ সদস্য আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। সোমবার আদালতে জবানবন্দি দিচ্ছেন নন্দ দুলাল রক্ষিতও। অধিকতর তদন্তের জন্য প্রদীপকে আরো একদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

এর আগে আত্মসমর্পণের পর গত ৬ আগস্ট ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দদুলালসহ সাত পুলিশের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর সাত দিনের রিমান্ড শেষে দ্বিতীয় দফায় ২৪ আগস্ট আরো সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছিল র‌্যাব। আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন। ওই চার দিন রিমান্ড শেষ হলে তদন্তের স্বার্থে তৃতীয় দফায় আরো চার দিনের আবেদন করা হলে গত শুক্রবার (২৮ আগস্ট) আদালত তাদের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত আলীর গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান। ঘটনার পর পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় দুটি ও রামু থানায় একটি মামলা করে। মামলায় এ পর্যন্ত সাত পুলিশ সদস্য, এপিবিএনের তিন সদস্য ও টেকনাফ পুলিশের করা মামলার তিন সাক্ষীসহ ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এপিবিএনের তিন পুলিশ সদস্য পৃথকভাবে গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার আদালতে ১৬৪ ধারা মতে জবানমন্দি দেন। যার কারণে এ তিন পুলিশ সদস্য কারাগারে রয়েছেন।

Print Friendly and PDF

———