চট্টগ্রাম, রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ , ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রামগড়ে ফারুক হত্যার রহস্য উদঘাটন; আসামী গ্রেফতার

প্রকাশ: ২ আগস্ট, ২০২০ ১০:৩০ : পূর্বাহ্ণ

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি:

পুলিশের শ্বাসরুদ্ধ অভিযানে ঘটনার ২০ দিনের মাথায় খাগড়াছড়ির রামগড়ের কালাডেবায় রাতের আঁধারে নিজ বাড়িতে যাবার পথে মোঃ ওমর ফারুক নামের যুবক হত্যার রহস্য উদঘাটন করে মূলহত্যাকারী মৃদুল কান্তি ত্রিপুরা প্রকাশ আকাশ (১৮) কে কালাডেবা বাজার থেকে শনিবার (১ জুলাই) অভিযান চালিয়ে আটক করেছে রামগড় থানা পুলিশ।

আটককৃত মৃদুল ত্রিপুরা পৌরসভার কালাডেবা এলাকার উপেন্দ্র ত্রিপুরার ছেলে। গত ১১জুলাই রাত সাড়ে ১০টার সময় মাথায় গুরত্বর আঘাতপ্রাপ্ত ফারুককে স্থানিয়রা উদ্ধার করে প্রথমে রামগড় হাসপাতাল পরে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নিয়ে গেলে রাত ২টার দিকে ফারুকের মৃত্যু হয়।

নিহত ফারুক রামগড়ের কালাডেবা আলী নেওয়াজের ছেলে সে ফটিকছড়িতে একটি ঔষধ কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতো।

হত্যার রহস্য উদঘাটনের পর আসামী মৃদুলকে শনিবার খাগড়াছড়ি আমলী আদালতে নিয়ে যায় পুলিশ। এসময় আদালতের সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট মো: মোরশেদুল আলমের কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে আসামী মৃদুল ত্রিপুরা।

পুলিশের দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঘটনার কয়েকদিন আগে আসামী মৃদুল ঘটনাস্থলের কিছু দূরে ব্রীজের উপরে সন্ধ্যা রাত্রে দুই পা মেলে বসে মোবাইলে কথা বলছিল ঐ রাস্তা দিয়ে ফারুক হেঁটে যাওয়ার সময় মৃদুলের পায়ের সাথে আঘাত লাগে এতে মৃদুল দুঃখ প্রকাশ করার পরেও ফারুক মৃদুলকে থাপ্পর মারে এ ঘটনায় ফারুককে উচিৎ শিক্ষা দেওয়ার পরিকল্পনা করে আসামি মৃদুল।

ঘটনার দিন ঐ সময়ে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির মধ্যে ফারুক ছাতা মাথায় ও মোবাইলের হেডফোনে কথা বলতে বলতে বাড়ি ফিরছিলো। ফারুক ঘটনাস্থলে ব্রীজের উপর অপেক্ষারত মৃদুলকে অতিক্রম করে চলে গেলে মৃদুল পিছু নেয় এবং কাঠের চেলি দিয়ে ছাতার উপর দিয়ে ফারুকের মাথায় সজোরে আঘাত করে। এসময় ফারুক মাটিতে পড়ে অচেতন হয়ে গেলে আসামী মৃদুল ফারুকের ব্যবহৃত মোবাইলটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

রামগড়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মো: শামসুজ্জামান জানান, ঘটনার পর থেকেই হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে ফারুকের ব্যবহৃত চুরী হওয়া স্মাটফোনটির সূত্র ধরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করে পুলিশ। ফোনটি ঘটনার দিন ভোরে অন করে আবার বন্ধ করে দেয় পরে ১৩ জুলাই ফোনটিতে নতুন সিম লাগিয়ে ব্যবহার শুরু করে আসামী তারই সূত্র ধরে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। আসামির কাছ থেকে ফারুকের ব্যবহৃত শাওমি মোবাইল ফোনটিও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Print Friendly and PDF

———