চট্টগ্রাম, সোমবার, ৩ আগস্ট ২০২০ , ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচলে ইতালির নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশ: ৭ জুলাই, ২০২০ ৮:২৩ : অপরাহ্ণ

ঢাকা থেকে যাওয়া অভিবাসীদের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ায় বাংলাদেশের সাথে এক সপ্তাহের জন্য ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইতালি। বাংলাদেশ থেকে রোমে পৌঁছানো সর্বশেষ ফ্লাইটে ‘উল্লেখযোগ্য সংখ্যক’ করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়ার পরে ইতালির স্বাস্থ্যমন্ত্রী রবার্তো স্পেরাঞ্জা ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে রোমে পৌঁছানো সর্বশেষ ফ্লাইটে ‘উল্লেখযোগ্য সংখ্যক’ করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়ার পরে ইতালির স্বাস্থ্যমন্ত্রী রবার্তো স্পেরাঞ্জা ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তির বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, এক সপ্তাহের এই নিষেধাজ্ঞা চলাকালে ইতালির সরকার ইউরোপের বাইরে থেকে আসা ও শেনজেনভুক্ত দেশের পর্যটকদের জন্য সতর্কতামূলক বিষয় নিয়ে কাজ করবে।

এদিকে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ফ্লাইট চলাচলে ইতালির নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে তেমন কিছু জানানো হয়নি।

তবে হযরত শাহজাজাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শাহরিয়ার সাজ্জাদ বলেন, ‘ইতালিগামী একটি ফ্লাইটে করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়ার কথা আমরা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে শুনেছি। মন্ত্রণালয় থেকে আমাদেরকে জানানো হয়েছে, আগামীতে যাতে ইউরোপের ফ্লাইটগুলোতে আরো বেশি সতর্কতার সঙ্গে কাজ করা হয়।’

শাহরিয়ার সাজ্জাদ আরো বলেন, ‘আমরাও আমাদের কথা মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছি। আমরা বলেছি, বিমানবন্দর থেকে করোনার টেস্ট করে কাউকে বিমানে উঠানো হয় না। তবে আমরা কারো শরীরে কোনো উপসর্গ আছে কি না তা দেখি। আর জ্বর আছে কি না তা যন্ত্রের মাধ্যমে মাপা হয়। এখন ধরেন, আপনি নাপা খেয়ে বিমানবন্দরে এলেন। তাহলে আমরা বুঝবো কীভাবে আপনার জ্বর ছিল? সুতরাং এই বিষয়ে মন্ত্রণালয় যে সিদ্ধান্ত নিবেন আমরাও সেভাবে কাজ করবো।’

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারির দিকে ইতালিতে ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লেও বাংলাদেশে তখনও করোনা আক্রান্ত কোনো রোগী পাওয়া যায়নি। ওই সময় ইতালিসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রবাসীরা দেশে ফিরতে শুরু করেন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো তিনজন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার ঘোষণা আসার পরও ইতালিতে করোনায় মৃত্যুর মিছিল ছিল। তবে বর্তমানে ইতালি অতি সংক্রামক এ রোগের বিস্তারে লাগাম পরাতে পারলেও বাংলাদেশ ধুঁকছে।

Print Friendly and PDF

———