চট্টগ্রাম, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০ , ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনায় একদিনে আক্রান্ত তিন ক্রিকেটার

প্রকাশ: ২০ জুন, ২০২০ ৯:৩৯ : অপরাহ্ণ

মহামারি করোনাভাইরাসের থাবা দিন দিন বিস্তৃত হচ্ছে। এতে আক্রান্ত হচ্ছে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। এবার ক্রিকেটাঙ্গনে থাবা বসিয়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। একদিনেই আক্রান্ত হয়েছেন জাতীয় দলের তিনজন ক্রিকেটার।

শনিবার সকালে খবর আসে জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার নাফিস ইকবাল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। দুপুরে খবর পাওয়া গেল নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার দেহেও মিলেছে করোনা ভাইরাস।

আর সন্ধ্যায় খবর এলো জাতীয় দলের বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু করোনায় আক্রান্ত। এর আগে ক্রিকেটার আশিকুর রহমান ও সজিব দাস আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর এসেছে।

বাংলাদেশে বৈশ্বিক মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের প্রথম উপস্থিতি শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। এরপর থেকে প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় যোগ হচ্ছে নতুন মাত্রা। সারা বিশ্বের পাশাপাশি প্রতিদিন বাংলাদেশেও মারা যাওয়া এবং আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩৭ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে দেশে মৃত্যুবরণ করেছেন এক হাজার ৪২৫ জন। ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৩১ জনের নমুনা পরীক্ষায় তিন হাজার ২৪০ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। দেশে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা এক লাখ আট হাজার ৭৭৫ জন।

মাশরাফির করোনা ফলাফল পজিটিভ আসে শুক্রবার। তবে বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রচারে আসে শনিবার। তার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে তিনি সুস্থ আছেন। বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সূত্র জানায়, গত কয়েকদিন তার শরীরে জ্বর ছিল। তাই গত ১৮ জুন তিনি করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ঢাকার শিশু হাসপাতালের ল্যাবে তার নমুনা পরীক্ষা হয়। পরে শুক্রবার ফলাফলে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়।

এর আগে গত ১৫ জুন নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে মাশরাফির শাশুড়ি হোসনেয়ারা সিরাজের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

নাফিস ইকবাল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেও শারীরিকভাবে এখনো সুস্থ রয়েছেন। তিনি ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের বড় ভাই। তামিম ইকবাল করোনা মহামারির শুরু থেকেই দুস্থদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তার বড় ভাই নাফিস ইকবালও মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

জাতীয় দলের বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর শরীরে গত সপ্তাহে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। গত বুধবার করোনা পরীক্ষা করিয়ে আজ দুপুরে তার করোনা ধরা পড়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। এখন তিনি নারায়ণগঞ্জের নিজ বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার বাবা-মাও করোনা পজিটিভ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

Print Friendly and PDF

———