চট্টগ্রাম, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০ , ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হাটহাজারী মাদ্রাসার সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগ চাননি বাবুনগরী

প্রকাশ: ১৮ জুন, ২০২০ ৯:৪৬ : পূর্বাহ্ণ

অব্যাহতিপ্রাপ্ত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসার সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগ চাননি বলে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন।

পক্ষান্তরে হাটহাজারী মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বাবুনগরী বৈঠকে এসে পদত্যাগ চাওয়ায় তাকে অব্যাহতি দিয়ে মাওলানা শেখ আহমদকে ওই পদে স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে।

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বুধবার (১৭ জুন) রাতে সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলেন, ‘‘আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে বুধবার হাটহাজারী মাদ্রাসার মজলিসে শুরার বৈঠক হয়। ওই বৈঠকের শেষ পর্যায়ে কিছু বিষয় সম্পর্কে জানতে আমাকে ডাকা হয়।

‘‘সেসব বিষয়ে আমি আমার সুস্পষ্ট বক্তব্য উপস্থাপন করেছি। কিন্তু বৈঠকে শুরার সদস্যদের কাছে সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগ চাওয়া বা পদত্যাগের বিষয়ে কোনো ধরনের সম্মতি প্রকাশ করিনি। বৈঠকে আমাকে মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার বিষয়ে শুরার সদস্যরা কিছুই বলেননি। কিন্তু বৈঠক শেষ হওয়ার অনেক পরে শুরার একজন সদস্য সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে আমাকে অব্যাহতির বিষয়টি জানিয়েছেন।’’

বাবুননগরী বলেন, ‘‘মাদ্রাসার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে মাওলানা নোমান ফয়জীর বরাতে ‘আমি মজলিসে শুরার সদস্যদের কাছে সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগের সম্মতি প্রকাশ করায় তারা আমাকে ওই পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন’ বলে প্রচার করা হচ্ছে- যা ভিত্তিহীন। আমি শুরার সদস্যদের কাছে কোনো পদত্যাগ চাইনি।’’

এদিকে, আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া প্রসঙ্গে মজলিশে শুরার সদস্য নোমান ফয়জী বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফীর উপস্থিতিতে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী শুরা কমিটির সদস্যদের কাছে সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে ইস্তফা দিয়েছেন। শুরা কমিটির সদস্যরা তার ইস্তফার বিষয়টি গ্রহণ করেছেন এবং উনার স্থলে মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস আল্লামা শেখ আহমদকে আল্লামা শফীর সহযোগী পরিচালক হিসেবে নির্ধারণ করেছেন।

বুধবার (১৭ জুন) দিনব্যাপী হাটহাজারী মাদ্রাসার মজলিশে শুরা কমিটির বৈঠকে আল্লামা শফী আমৃত্যু মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন বলে সিদ্ধান্ত জানানো হয়। একই সঙ্গে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীকে সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে তার স্থলে আল্লামা শেখ আহমদকে স্থলাভিষিক্ত করা হয়।

Print Friendly and PDF

———