চট্টগ্রাম, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০ , ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

একদিনে ২২জনসহ রাঙামাটিতে করোনায় আক্রান্ত, সংখ্যা বেড়ে ১০৪

প্রকাশ: ১৪ জুন, ২০২০ ১০:০৮ : পূর্বাহ্ণ

আলমগীর মানিক, রাঙামাটি প্রতিনিধি

৫ দিন বিরতির পর রাঙামাটিতে নতুন করে আরও ২২জনের দেহে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে মোট করোনা পজেটিভ ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়াল ১০৪ জনে।

শনিবার পাওয়া ২২ জনের মধ্যে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য রয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে কতজন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

সিভিল সার্জন অফিসের করোনা বিষয়ক ফোকাল পার্সন ডা. মোস্তফা কামাল ২২জনের পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়ার তথ্যটি নিশ্চিত করে জানান, শনিবার দুই কিস্তিতে মোট ২২জনের পজেটিভ রিপোর্ট আমরা হাতে পেয়েছি।

এর মধ্যে দুপুরে চট্টগ্রামের সিভাস্যু থেকে ২৫টি রিপোর্ট আসে; যেখানে ৮ জন করোনা পজিটিভ। এই আটজন সকলেই কাপ্তাই উপজেলার বাসিন্দা।

মোস্তফা কামাল জানান, শনিবার দিবাগত রাতে দ্বিতীয় কিস্তিতে আমরা আরো ৫৭ জনের রিপোর্ট হাতে পাই, যেখানে ১৪ জন করোনা পজেটিভ রয়েছেন।

চট্টগ্রামের ফৌজদার হাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজে (বিআইটিআইডি) নমুনা পরীক্ষায় ওই ১৪ জনের করোনা পজিটিভ বলে শনাক্ত হন।

এই ১৪ জনের সকলেই রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে বিভিন্ন কারনে গেলে তাদের কাছ থেকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নমুনা সংগ্রহ করে চট্টগ্রাম পাঠিয়েছিলো।

তিনি এও জানান, ২২ জনের মধ্যে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য রয়েছেন। তবে বিস্তারিত তথ্য জানতে সময় লাগবে। তার তথ্য মতে এই ২২ জনের মধ্যে ৮ বছরের শিশুকন্যা থেকে ৪৭ বছরের পৌঢ় রয়েছেন।স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মোতাবেক এখন পর্যন্ত রাঙামাটি থেকে সর্বমোট ১৫২৬টি সংগৃহিত নমুনা চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটে অবস্থিত বিশেষায়িত হাসপাতাল বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ (বিআইটিআইডি), চট্টগ্রাম ভেটেনারি এন্ড এনিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ে(সিভাসু) এবং ঢাকার পরীক্ষাগারে পাঠিয়েছে রাঙামাটির সিভিল সার্জন অফিস।

তারমধ্যে ১৩২১টি পরীক্ষার রিপোর্ট রাঙামাটির স্বাস্থ্য বিভাগে আসলেও এখন পর্যন্ত ২০৫ টি নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট এখনো পর্যন্ত হাতে পায়নি রাঙামাটির স্বাস্থ্য বিভাগ কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ১৯৭ জন, আরোগ্য লাভ করেছেন ৪৮ জন, আইসোলেশনে আছেন ৯ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ২ জন।

এদিকে কাপ্তাইয়ের করোনা পজিটিভ ৮ জনের মধ্যেও ৪ জন ওয়াগ্গাছড়া পাগলী পাড়া ক্যাম্পের পুলিশ সদস্য। এছাড়া একজন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের কর্মচারী, একজন উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যানবিদ, একজন বড়ইছড়ি কর্নফুলি সরকারি কলেজ এলাকার বাসিন্দা এবং অপর একজন রাইখালী ইউনিয়নের পূর্ব কোদালার করোনায় মৃত নার্স যুবকের পিতা।

Print Friendly and PDF

———