চট্টগ্রাম, সোমবার, ১ জুন ২০২০ , ১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অসহায় মানুষদের জন্য মাঠে নিবেদিত নয়ন চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ৩ এপ্রিল, ২০২০ ৪:৩০ : অপরাহ্ণ

মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাঠে থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন মিরসরাই উপজেলার করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এনায়েত হোসেন নয়ন।

গত ২০ দিন ধরে এলাকায় তিনি বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। শুরুতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে ইউনিয়ন বাসীর মাঝে ১০ হাজার সাবান-মাক্স বিতরণ, সচেতনতার লক্ষ্যে ২০ হাজার লিফলেট বিতরণ, বারইয়ারহাট-খাগড়াছড়ি-রামগড় সড়ক, গ্রামীণ সড়কে জীবানুনাশক স্পে ছেটনো, নিয়মিত এলাকায় মাইকিং ও মসজিদে মসজিদে আজানের আগে প্রচারনা সহ বিভিন্ন প্রশংসনীয় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

গত ২৬ মার্চ অঘোষিত লকডাউনে বেকার হয়ে যান শ্রমজীবি মানুষ। এমন কর্মহীন প্রায় ১৩শ মানুষের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেছেন। তার এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকে। পাশপাশি অন্য জনপ্রতিনিধিদের জন্য তার এমন কার্যক্রম অনুপ্রেরণা যোগাবে। এছাড়া তার সৌজন্যে ৬ হাজার কেজি চাউল বিতরণ করবেন সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের পুত্র আইটি বিশেষজ্ঞ মাহবুব রহমান রুহেল।

এনায়েত হোসেন নয়ন বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনায় অঘোষিত লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছে শ্রমজীবি মানুষ। যারা একদিন কাজ না করলে তাদেও পরিবার না খেয়ে থাকতে হবে। আমার প্রিয় নেতা, সাবেক সফল মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের নির্দেশে ও মিরসরাই’র আগামীর কান্ডারী আইটি বিশেষজ্ঞ মাহবুব রহমান রুহেলের পরামর্শে করোনা প্রতিরোধে মাঠে থেকে কাজ করে যাচ্ছি।

ইতমধ্যে ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় ১৩শ কর্মহীন, শ্রমজীবি, অসহায়, আধিবাসী ও প্রতিবন্ধিদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমার এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে ইনশাল্লাহ। তিনি বলেন, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতাদের কাজ হলো দুঃসময়ে জনগনের পাশে থাকা।

তাই আমি সমাজের সকল বিত্তবান মানুষ ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি অনুরোধ করছি আপনারা কর্মহীন, শ্রমজীবি, রিক্সা চালক, টেক্সিচালক, দিনমজুর এদের পাশে দাড়ান। তিনি আরো বলেন, মধ্যবিত্ত অনেকে পরিবার রয়েছে যারা চক্ষু লজ্জার কারণে বলতে পারছে না, অথচ কষ্ট করছে। তাদের আমি বিনীত অনুরোধ করবো আপনারা কোন সংকোচ না করে আমার নম্বরে ফোন করবেন আমি পরিচয় গোপন রেখে আপনার বাড়িতে খাবার পৌছে দেব।

Print Friendly and PDF

———