চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ , ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’

প্রকাশ: ২৫ এপ্রিল, ২০২০ ১১:৪২ : পূর্বাহ্ণ

বৈশাখের শুরুতে বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হচ্ছে ঘূর্ণিঝড়। সাগরে ফুঁসতে শুরু করেছে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’। এই ঝড়ের নাম দিয়েছে থাইল্যান্ড। বঙ্গোপসাগরে এই ঘূর্ণিঝড় যথেষ্ট শক্তিশালী বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর।

এপ্রিলের শেষে অথবা মে মাসের প্রথমে উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে এই ঝড়। তবে কোন উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে আম্ফান তা এখনও স্পষ্ট নয়। সাগরে থিতু হলে স্পষ্ট হবে ঘূর্ণিঝড়ের অভিমুখ বা কোথায় আছড়ে পড়তে।

মৌসুমের প্রথম সাইক্লোনটি এপ্রিলেই তৈরি হতে পারে। শীঘ্রই বঙ্গোপসাগরে এই মৌসুমের প্রথম সাইক্লোন তৈরি হতে চলেছে। এর জেরে ২৭ এপ্রিল আন্দামান সাগরের উপর ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে। পরদিন ২৮ এপ্রিল একই অঞ্চলে থেকে তা শক্তি সঞ্চয় করবে। ২৯ এপ্রিল ওই ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপে পরিণত হবে। ৩০ এপ্রিল গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে সমুদ্রের ওপর দিয়ে বইতে শুরু করবে।

‘নর্দান ইন্ডিয়ান ওসেন সাইক্লোন’ এর নামগুলি আটটি দেশ পর্যায়ক্রমে রাখে। দেশগুলো হলো- বাংলাদেশ, ভারত, মালদ্বীপ, মায়ানমার, ওমান, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও থাইল্যান্ড।

আজও হতে পারে ঝড়-বৃষ্টি, রয়েছে নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত

দেশে গত কয়েকদিন ধরে টানা ঝড়, বৃষ্টি ও বজ্রপাত হচ্ছে। শনিবারও সারাদেশে ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। কোথাও ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে এবং কোথাও ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

তাই কিছু অঞ্চলের নদীবন্দরকে ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত এবং বাকি অঞ্চলের নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

শনিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সিলেট ও ময়মনসিংহ অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

Print Friendly and PDF

———