চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০২০ , ২৫ আষাঢ়, ১৪২৭

কভিডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৯৬৫

প্রকাশ: ১৮ মার্চ, ২০২০ ৯:৫৮ : পূর্বাহ্ণ

কভিড-নাইন্টিনে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৭ হাজার ৯৬৫ জন, আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ১ লাখ ৯৮ হাজার ১২৯ জন। চীনে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৩ হাজার ২২৬ জন। আর আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮০ হাজার ৮৮১ জন।

তবে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে কেউ মারা যাননি, আক্রান্তের সংখ্যাও খুবই সামান্য। ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে ৩৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে প্রাণহানি হলো ২ হাজার ৫০৩ জনের। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫২৬ জন। কভিডের আঘাতে গুরুতর রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৬০।

সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৯৪১ জন। চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ২৬ হাজার ৬২। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের রোগী ৩১ হাজার ৫০৬। দেশটিতে নারীদের তুলনায় পুরুষ বেশি মারা যাচ্ছে। এ পর্যন্ত মৃত্যুর হার নারী ৩৮ ভাগ, পুরুষ ৬২ ভাগ। ইতোমধ্যেই বিশ্বের অন্তত ১৬৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কভিড।

এরপরেই রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের ইরান। দেশটিতে একদিনে মারা গেছেন আরও ১৩৫ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৭৮ জন। ফলে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৮৮ জন, আর আক্রান্ত ১৬ হাজার ১৬৯ জন।

স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৯১ জন, নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৮৪ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৮২৬ জন, মৃত্যু ৫৩৩ জনের। ২২০ বিলিয়ন ডলারের ত্রাণ কার্যক্রম ঘোষণা করেছে স্পেন।

ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২৭ জন, আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজারেরও বেশি। দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ১৭৫ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৭৩০ জন।

৫০ রাজ্যের সবগুলোতেই ছড়িয়ে পড়েছে কভিড। দ্রুত বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন আরও ১৭ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট মৃত্যুর ঘটনা ১০৩টি। এদিন দেশটিতে নতুন করে আরও ১ হাজার ৬৪৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হয়েছে। ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩০৮ জন।

অর্থনৈতিক সংকট কাটাতে আমেরিকানদের সরাসরি অর্থ সহায়তার পরিকল্পনা করছে ট্রাম্প প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ রাজ্যের সবগুলোতেই ছড়িয়ে পড়েছে কভিড। ৩৭টি রাজ্যে বন্ধ ঘোষণা হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। নর্দার্ন ক্যালিফোর্নিয়ার অন্তত ৮০ লাখ বাসিন্দাকে বাড়ির বাইরে না বের হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জার্মানিতে নতুন নয়জনসহ মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৬ জন। একদিনেই দেশটিতে কভিড আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২ হাজার ৯৫ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৯ হাজার ৩৬৭ জন।

শুরুর দিকে আশঙ্কাজনক হারে বাড়লেও গত কয়েকদিনে কভিড সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছে দক্ষিণ কোরিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ জন, মারা গেছেন ছয় জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৩২০ জন, মৃত্যু ৮১ জনের।

এছাড়া যুক্তরাজ্যে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রথম প্রাণহানি হয়েছে ব্রাজিল, তুরস্ক ও মালয়েশিয়ায়।

এদিকে ইউরোপে সংক্রমণ ও প্রাণহানি বাড়তে থাকায় বিদেশিদের প্রবেশে ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইউরোপিয় ইউনিয়ন। পরবর্তি নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত কর্মীদের টেলি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে নাসা।

সংক্রমণ রোধে চলতি সপ্তাহের সব বৈঠক বাতিল করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। নিজ দেশেই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। কভিড আতঙ্কে দেশজুড়ে কারফিউ জারি করেছে সার্বিয়া।

বিশ্বজুড়ে কভিড আক্রান্তদের মধ্যে অন্তত ৮১ হাজার ৭২৭ জন চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

Print Friendly and PDF

———