চট্টগ্রাম, রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০ , ১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সাতকানিয়ায় রাষ্ট্রপতি

‘নবীন সৈনিকদের ভালো গুণাবলী অর্জন করতে হবে’

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ৫:৩২ : অপরাহ্ণ

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ‘সততা, আনুগত্য ও শৃঙ্খলা একটি বাহিনীর পেশাগত দক্ষতার মাপকাঠি। নবীন সৈনিকদের ভালো গুণাবলী অর্জন করতে হবে।’

সৈনিকদের বুদ্ধিমত্তা, নির্ভরযোগ্যতা ও উদ্দীপনা অর্জনের ওপর গুরুত্বারোপ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘আজ তোমরা যারা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের পরিবারভূক্ত হলে- তোমাদের চরিত্রে মানবিক গুণাবলির বিকাশ ঘটবে এবং লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে নিজেদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালনে সর্বদা সচেষ্ট থাকবে।’

সোমবার দুপুরে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ৯৪তম রিক্রুট ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

নবীন সৈনিকদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি আরো বলেন, ‘আজ তোমরা দেশ মাতৃকার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দৃপ্ত শপথ নিয়ে সৈনিক জীবনে প্রবেশ করতে যাচ্ছো। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, তোমরা বিজিবির সার্বিক কর্মকাণ্ড পরিচালনায় আরও গতিশীল ভূমিকা রেখে বাহিনীর সুনাম-সুখ্যাতি আরও বৃদ্ধি করবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম, বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার অ্যান্ড কলেজের কমাড্যান্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ওমর যাহিদ।

এবার বিজিবির ৯৪তম রিক্রুট ব্যাচের মৌলিক প্রশিক্ষণ ২০১৯ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার অ্যান্ড কলেজে শুরু হয়। এ ব্যাচে প্রশিক্ষণ নেয়া মোট ৫৪৪ রিক্রুটের ৪৯৫ পুরুষ এবং ৪৯ নারী রিক্রুট রয়েছেন। দীর্ঘ ২৪ সপ্তাহের অত্যন্ত কঠোর এ প্রশিক্ষণ সফলভাবে শেষ করে সোমবার আনুষ্ঠানিক শপথ গ্রহণ করেন তারা।

এর আগে রাস্ট্রপতি কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং অভিবাদন গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম অঞ্চলের সেনাবাহিনী ও বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, স্থানীয় বেসামরিক প্রশাসন ও পুলিশ কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তি, বিজিবি সদস্য ও তাদের পরিবার, নবীন সৈনিকদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে প্যারেড কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ৯৪তম রিক্রুট ব্যাচের অফিসার ইনচার্জ মেজর কাজী মনজুরুল ইসলাম এবং প্যারেড অ্যাডজুটেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সহকারী পরিচালক বেগ আব্দুল্লাহ আল মাসুম।

Print Friendly and PDF

———