চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০ , ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রাম বন্দরে বিদেশি নাবিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা

সময় টিভি প্রকাশ: ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ৮:৩৬ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম বন্দরের বহিঃনোঙ্গরে অবস্থানরত বিদেশি জাহাজগুলোতে গিয়ে নাবিক এবং ক্রুদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছেন চিকিৎসকরা। বিশেষ করে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সন্দেহভাজন রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে বন্দর হাসপাতালেও একটি ওয়ার্ডকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

চীনসহ আরো কয়েকটি দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বন্দরও সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল জুলফিকার আজিজ।

বন্দর চেয়ারম্যান জানান, যেহেতু মানুষের মাধ্যমেই এই ভাইরাস ছড়াচ্ছে, তাই বিদেশি নাবিকদের শারীরিক পরীক্ষার পর বন্দরে নামতে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া বন্দরের জেটিতে কর্মরতদের’ও বেশ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

প্রতি মাসে চট্টগ্রাম বন্দর এবং বন্দরের বহিঃনোঙ্গরে কয়েকশ বিদেশি জাহাজের অবস্থান। আর প্রতিটি জাহাজে ৩০ থেকে ৪০ জনের বেশি নাবিক এবং ক্রু থাকছে। যে কারণে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ছড়ানোর ক্ষেত্রে বন্দরও ঝুঁকির মধ্যে পড়তে পারে। আর তাই বিশেষ ব্যবস্থা বলে জানান বন্দর কর্মকর্তারা। বন্দর এবং বন্দরের বহিঃনোঙ্গরে অবস্থানরত জাহাজগুলোর মধ্যে চীন এবং তার পার্শ্ববর্তী যেসব দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে সেসব দেশের জাহাজও রয়েছে।

চট্টগ্রাম বন্দরের সচিব মোহাম্মদ ওমর ফারুক বলেন, ‘আমরা মূলত চীনসহ যেসব দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে সেসব দেশের জাহাজগুলোর প্রতি বেশি নজর দিচ্ছি। আমাদের চিকিৎসকরা বহিঃনোঙ্গরে গিয়ে জাহাজে নাবিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছে। সে সাথে বন্দর হাসপাতালেও বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছ। চীন ছাড়া অন্যান্য দেশগুলোর ক্ষেত্রে শিপিং এজেন্টরা তাদের কোনো নাবিক কিংবা অসুস্থতার কথা জানালে আমাদের মেডিকেল টিম গিয়ে তাদের পরীক্ষা করছে। তবে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাস আক্রান্ত কিংবা সন্দেহভাজন কাউকে পাওয়া যায়নি।’

বর্তমানে খুব কম সংখ্যাক নাবিক কিংবা ক্রু জাহাজ থেকে বন্দরে নামছে বলে বন্দর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

Print Friendly and PDF

———