চট্টগ্রাম, বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ , ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফটিকছড়ির তিনশ বছর আগের গায়েবি মসজিদ, এখন অপরূপ!

প্রকাশ: ৩ জানুয়ারি, ২০২০ ৯:৫৭ : পূর্বাহ্ণ

বারআউলিয়ার পুণ্যভূমি খ্যাত চট্টগ্রামে পুরাতাত্তি্বক কিছু স্মৃতিচিহ্ন আছে মসজিদকে ঘিরে। ২০০ থেকে ৭০০ বছরের পুরনো ঐতিহ্যের এসব স্মারকও সময়ের স্রোতে হারিয়ে যাওয়ার পথে। মোগল আমলের তৈরি এমনই এক মসজিদ হচ্ছে হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী ফকিরপাড়া গায়েবি মসজিদ। ।

ফটিকছড়িতে দৃষ্টিনন্দন কারুকাজে পুনর্নির্মাণ করা হয়েছে হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী ফকিরপাড়া গায়েবি মসজিদ। এলাকার এক সমাজসেবক দানশীল ব্যক্তি তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে ওই মসজিদটি পুনর্নির্মাণ করেন।

ফটিকছড়ি-বারৈয়ারঢালা সড়ক দিয়ে যেতে হারুয়ালছড়ি চৌধুরী বাড়ির পাশ ঘেঁষে দৃষ্টিনন্দন মসজিদটি যে কারও নজর কাড়বেই। এলাকায় মানুষ এটিকে গায়েবি মসজিদ বলে চেনে।

এলাকায় মানুষ ভাষ্য ও সুত্র মতে,  এখন থেকে প্রায় সাড়ে তিনশ বছর আগে মোগল আমলে ইসলাম প্রচারে এসে তৎকালীন কিছু আলেম মসজিদটি প্রতিষ্ঠা করেন। কালের বিবর্তনে এটি ফকিরপাড়া গায়েবি জামে মসজিদ নামে পরিচিতি লাভ করে।

ঐতিহাসিক মসজিদটি সম্পর্কে এলাকার কয়েকজন প্রবীণ ব্যক্তি জানান, কয়েকশ বছর আগে এই মসজিদ তৈরি হয়েছিল। আমাদের পূর্বপুরুষেরা বলতেন, এটি গায়েবি হিসেবে গড়ে উঠেছিল। স্মরণকালে এটি তিন দফা পুনর্নির্মাণ করা হয়।

তারা আরো জানান, মসজিদটিতে কোনো মানত, নিয়ত করলে তা পূরণ হয় বলে আশপাশের ইউনিয়নের মানুষের মধ্যে প্রচার আছে। বহু দূর থেকে এখানে লোকজন এসে নামাজ আদায় করেন।

২০১৪ সালে এলাকার দানশীল ব্যক্তি মো. দিদারুল আলম চৌধুরী নিজ উদ্যোগে মসজিদটি ভেঙে মালয়েশিয়ার একটি সুদৃশ্য মসজিদের নকশার অনুকরণে মসজিদটি পুনর্নির্মাণ শুরু হয়। সম্প্রতি মসজিদটির নির্মাণকাজ শেষ হয়। একটি সুদৃশ্য মিনারসহ একতলা বিশিষ্ট মসজিদটিতে এক সাথে দেড় থেকে দুই হাজার মুসলি্ল নামাজ আদায় করতে পারে।

পুনশ্চ: চট্টগ্রামের প্রথম ও শীর্ষস্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিটিজি টাইমসে ”শুক্রবারের বিশেষ প্রতিবেদন” এ ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হচ্ছে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ও দর্শনীয় মসজিদ গুলোর উপর বিশেষ প্রতিবেদন। আপনি ও লিখতে পারেন আপনার পাশের ঐতিহ্যবাহী ও দর্শনীয় মসজিদ নিয়ে। ছবি সহ লিখা পাঠাবেন আমাদের মেইলে। 

আরো… 

Print Friendly and PDF

———