চট্টগ্রাম, রোববার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ , ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মিরসরাইয়ে ঘূর্নিঝড় বুলবুলের প্রভাবে ভারি বৃষ্টিতে আমন ধান ও সবজি নষ্ট

এম মাঈন উদ্দিন, মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১২ নভেম্বর, ২০১৯ ৯:৫০ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে আমন ধান ও সবজির ক্ষতি হয়েছে। ভারি বৃষ্টির কারণে শীতকালীন সবজি প্রায় নষ্ট হয়ে গেছে। এতে করে ক্ষতির সম্মুক্ষিণ হয়েছেন এখানকার চাষীরা।

জানা গেছে, গত রবিবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত টানা বৃষ্টিতে জমিতে পানি জমে আগাম লাগানো শীতকালীন সবজি মুলা, বেগুন,ফুলকপি, বাঁধাকপি, লাশ শাক, শিমসহ ও খেসারি ডালের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সবজির এমন ক্ষতিতে হতাশ হয়ে পড়েছেন কৃষকেরা।

উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের মধ্যম ওয়াহেদপুর এলাকার কৃষক আবুল কাশেম বলেন, এক বিঘা জমিতে মুলা চাষ করেছি। ভালো গাছ হয়েছে। ৩০-৪০ দিন পর বিক্রি করতে পারতাম। বৃষ্টির কারণে এখন জমিতে পানি জমে গেছে। অনেক গাছ পচে যাচ্ছে।

উপজেলার ১৬ নং সাহেরখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ মঘাদিয়া ঘোনা এলাকার কৃষক আব্দুল কাউয়ুম বলেন, ‘এবার ৪ বিঘা জমিতে খেসারি ডালের বীজ ছিটিয়েছিলাম। গাছও হয়েছিল বেশ ভালো। কিন্তু বৃষ্টিতে জমির সব জায়গায় পানি জমে গেছে। মনে হয় না এ ডাল আর থাকবে।

মিরসরাই উপজেলা কৃষি কার্যালয়ের হিসাব মতে, এবার উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে ২০ হজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আমন ধান, ১ হজার ১০০ হেক্টরে শীতকালীন সবজি ও ৪০০ হেক্টর জমিতে খেসারি ডালের আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে গত দুই দিনের বৃষ্টিতে ৭০০ হেক্টর জমির আমন ধান, ৫০ হেক্টর জমির শীতকালীন সবজি ও ১০০ হেক্টর জমির খেসারি ডাল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

মিরসরাই উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কাজী মো. নুরুল আলম বলেন, অসময়ের ভারী বৃষ্টিতে উপজেলার সব ইউনিয়নেই আমন ধান ও শীতকালীন সবজির কমবেশি ক্ষতি হয়েছে। তবে এর মধ্যে করেরহাট, হিঙ্গুলী, ওসমানপুর, মায়ানী, হাইতকান্দি, মিরসরাই সদর, খৈয়াছড়া, সাহেরখালী, ও ওয়াহেদপুর ইউনিয়নে ক্ষতির পরিমাণ বেশি। ফসলের জমি থেকে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের জন্য মুহুরী প্রজেক্ট স্লুইসগেট কর্তৃপক্ষকে জোয়ারের সময় বন্ধ রেখে ভাটার সময় কপাট খুলে রাখতে অনুরোধ করা হয়েছে।

Print Friendly and PDF

———