চট্টগ্রাম, রোববার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ , ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পরীক্ষাকেন্দ্রে যাওয়া হলো না শিক্ষিকা অ্যানি বড়ুয়ার

প্রকাশ: ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ৪:২৯ : অপরাহ্ণ

 

প্রাথমিকের সমাপনী পরীক্ষার শুরুর দিন। এজন্য একটু সকাল সকালই বের হয়ে গেলেন বাসা থেকে। তবে রাস্তায় গিয়ে অপেক্ষা করছিলেন সহকর্মীর। কিন্তু সেই অপেক্ষাই কাল হলো তার। হঠাৎ বিস্ফোরণে ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় তার শরীর।

বলছিলাম চট্টগ্রামের পটিয়ার মেহেরআটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা অ্যানি বড়ুয়ার (৩৮) কথা। শনিবার সকালে নগরীর পাথরঘাটা এলাকায় ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় তিনি নিহত হন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত সাতজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন আরও ১০ জন।

জানা যায়, অ্যানি পটিয়ার উনাইনপুরা গ্রামের পলাশ বড়ুয়ার স্ত্রী। তিনি স্বামী পলাশ বড়ুয়া ও দুই ছেলে অভিষেক-অভিজিৎকে নিয়ে পাথরঘাটায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

স্বামী পলাশ বড়ুয়া জানান, আজ থেকে শুরু হওয়া সমাপনী পরীক্ষায় ডিউটি ছিল তার। সকালে বাসা থেকে বেরিয়ে পাথরঘাটা ব্রিকফিল্ড রোডে তার সহকর্মীর জন্য অপেক্ষায় ছিলেন। এর মধ্যে গ্যাস লাইনের বিস্ফোরণে ঘটনা ঘটলে অ্যানি দেয়ালের নিচে চাপা পড়েন। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পলাশ বড়ুয়া কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘আজকের পিএসসি পরীক্ষার প্রথম ডিউটিতে তাকে শাড়িও ঠিক করে দিয়েছি। পছন্দের শাড়ি পরে অ্যানি ডিউটিতে যাচ্ছিল। ও আগে বের হয়, আমি পরে বের হচ্ছিলাম। এরমধ্যে শুনি এ দুর্ঘটনা। আমাদের সাজানো গোছানো সংসার এক নিমিষেই শেষ। আমি ছেলেদের কী জবাব দেবো?’

Print Friendly and PDF

———