চট্টগ্রাম, বুধবার, ২৭ মে ২০২০ , ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রাম বন্দরে সব ধরণের কার্যক্রম বন্ধ, শাহ আমানতে বিমান ওঠানামা স্বাভাবিক

প্রকাশ: ৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১০:৪৩ : পূর্বাহ্ণ

অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া চট্টগ্রাম ৯ ও কক্সবাজারে ৪ নম্বর সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

একারনে দেশের প্রধান এ সমুদ্রবন্দরের সব ধরণের কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাভাবিক সূচি অনুযায়ী বিমান ওঠানামা করছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের সংকেতগুলোকে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে জানিয়ে,  শাহ আমানত বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক উইং কমান্ডার সারওয়ার ই জামান গনমাধ্যমকে বলেন, আমরা হেড কোয়ার্টারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি। আমাদের বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা স্বাভাবিক রয়েছে। আবহাওয়া দুর্যোগপূর্ণ হয়ে উঠলে তখন জরুরি ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এদিকে, শনিবার (৯ নভেম্বর) সকাল থেকে বন্দরের মূল জেটির জাহাজগুলো একে একে বহির্নোঙরে পাঠিয়ে দেওয়া হয় জানিয়ে  বন্দর সচিব মো. ওমর ফারুক গনমাধ্যমকে বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ আবহাওয়া অধিদফতরের সতর্ক সংকেতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বন্দর চ্যানেল নিরাপদ রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।

তিনি বলেন, কর্ণফুলী নদীর বন্দর চ্যানেলে অবস্থানরত অভ্যন্তরীণ জাহাজ ও ছোট ছোট নৌযানগুলো শাহ আমানত সেতুর উজানে পাঠিয়ে দিচ্ছে। বহির্নোঙরে (সাগরে) অবস্থানরত বড় জাহাজগুলো ক্রমান্বয়ে কুতুবদিয়া ও কক্সবাজার উপকূলে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এসব বড় জাহাজের ইঞ্জিন সার্বক্ষণিক চালু রাখতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

Print Friendly and PDF

———