চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ , ২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে অভিযানে পেঁয়াজের দাম কমে অর্ধেক!

প্রকাশ: ১ অক্টোবর, ২০১৯ ৭:০৫ : অপরাহ্ণ

রাতারাতি বিদেশ থেকে প্রতি কেজি ৪২ টাকায় আমদানি করা পেঁয়াজ ৮০-৯০ টাকায় বিক্রির প্রমাণ পেয়েছে প্রশাসন। চট্টগ্রামের চাক্তাই খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের পাইকারি আড়তে অভিযান চালিয়ে এমন চিত্র দেখেছে জেলা প্রশাসন।

এদিকে, দ্বিগুনে উন্নীত হওয়া পেঁয়াজের দাম জেলা প্রশাসনের অভিযানের প্রেক্ষিতে অর্ধেকে নেমে এসেছে।  ভারতের রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্তের জের ধরে রাতের মধ্যেই পেঁয়াজের দাম নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ৬৫-৭০ টাকা থেকে ১২০ টাকায়। মঙ্গলবার সকালে অভিযান শুরুর পর খাতুনগঞ্জে ভারতীয় পেঁয়াজ প্রতিকেজি ৬৫ থেকে ৭০ টাকা এবং মিয়ানমারের পেঁয়াজ প্রতিকেজি ৫৫ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

চট্টগ্রামের চাক্তাই খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের পাইকারি আড়তে অভিযানের পর এমন চিত্র দেখেছে জেলা প্রশাসন।মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে পরিচালিত এ অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম।

অস্বাভাবিকভাবে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির পেছনে কোনো অসাধু ব্যবসায়ীর হাত রয়েছে কিনা- তা খতিয়ে দেখতে অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি।

তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা কয়েকটি আড়ত ঘুরে প্রমাণ পেয়েছি তারা ৪২ টাকা কেজি দরে আমদানি করা পেঁয়াজ ৮০-৯০ টাকায় বিক্রি করেছে। তাদের আমরা কড়া নির্দেশ দিয়েছি কোনোভাবেই বাড়তি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করা যাবে না।’

তিনি বলেন, স্বাভাবিক বাজার মূল্যের চেয়ে পাইকারি এই বাজারে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি না করার মুচলেকা দিয়েছে খাতুনগঞ্জ আড়তদার সমিতির নেতৃবৃন্দ।

চাক্তাই খাতুনগঞ্জ আড়তদার ব্যবসা সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমরা আমদানিকারকদের কাছে জিম্মি। তারাই বেশি দাম নির্ধারিত করে দেয়। এই বাজারে বেশির ভাগই আড়তদার। আমরা কমিশনের মাধ্যমে বিক্রি করি পেঁয়াজ।’

Print Friendly and PDF

———