চট্টগ্রাম, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ , ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

আমান উল্লাহ কবির, টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি প্রকাশ: 17 October, 2019 9:50 : AM

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আটক আসামীসহ দুই মাদক কারবারি নিহত হয়েছে। উক্ত ঘটনায় সহকারী পুলিশ সুপারসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

ঘটনাস্থল হতে ১টি শুটার গান, দেশীয় তৈরী ৫টি এলজি, ৩৬ রাউন্ড গুলি এবং ৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোররাতের দিকে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের সাতঘরিয়াপাড়া সংলগ্ন পাহাড়ী জঙ্গলে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত মাদক কারবারীরা হচ্ছে, টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়ন কান্জর পাড়ার সামশুল আলমের পুত্র জিয়াবুল হক প্রকাশ বাবুল (৩০) ও বাহারছড়া ইউনিয়নের শীলখালীর কেফায়েত উল্লাহর পুত্র আজিম উল্লাহ (৪৬)। আহত পুলিশ সদস্যরা হচ্ছেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উখিয়া-টেকনাফ সার্কেল নিহাদ আদনান তাইয়ান, টেকনাফ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক সাব্বির আহমেদ, কনেস্টবল রাইসুল ইসলাম আসাদ ও শুক্কুর।

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল ১৬ অক্টোবর বুধবার বিকালের দিকে টেকনাফের হ্নীলা বাজার এলাকা থেকে বেশ কয়েকটি মামলার পলাতক আসামী অস্ত্রধারী মাদক কারবারী জিয়াবুল হক প্রকাশ বাবুলকে গ্রেফতার করে। এরপর আটক আসামীদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোররাতের দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উখিয়া-টেকনাফের দায়িত্বরত সার্কেল নিহাদ আদনান তাইয়ান এর নেতৃত্বে টেকনাফ মডেল থানার পুলিশের একটি দল হোয়াইক্যং ইউনিয়ন সাতঘরিয়াপাড়া এলাকার সংলগ্ন গহীন পাহাড়ে আটক অপরাধী ও অস্ত্রধারী মাদক কারবারীদের গোপন আস্তানায় অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করতে গেলে মাদক কারবারের সাথে জড়িত অপরাধীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আটক আসামীর সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ী গুলিবর্ষণ শুরু করে এবং আটক আসামীদের ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। উভয়পক্ষের গোলাগুলির এক পর্যায়ে উখিয়া-টেকনাফের সার্কেল নিহাদ আদনান তাইয়ানসহ পুলিশের ৪ সদস্য গুরুতর আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসার পর ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক বাবুল ও তার সহযোগী আজিম উল্লাহকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এরপর পুলিশ সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে প্রেরণ করে। কক্সবাজার পৌছার পর দায়িত্বরত ডাক্তার তাদের ২ জনকে মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে পুলিশ ১টি শুটার গান, দেশীয় তৈরী ৫টি এলজি, ৩৬ রাউন্ড গুলি এবং ৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

এব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান ওসি।

Print Friendly and PDF

———