চট্টগ্রাম, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ , ২৮শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দেশব্যাপী হেফাজতের বিক্ষোভ আজ

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:০৫ : পূর্বাহ্ণ

গতকাল চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় সংবাদ সম্মেলনে কর্মসূচি ঘোষণা করেন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী।

ভোলার বোরহানউদ্দিনে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে মহানবীকে কটূক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় সারাদেশে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। আজ মঙ্গলবার দেশের সব জেলা সদরে এই কর্মসূচি পালিত হবে।

গতকাল দুপুরে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজত আমির আল্লামা শাহ আহমদ শাহ’র কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী।

ভোলার ঘটনাকে পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যমূলক দাবি করে বাবুনগরী বলেন, ‘আমরা মনে করি বিষয়টি পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয়েছে। দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের উদ্দেশ্যে এটি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- ওই ছেলের আইডি হ্যাকড হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কথা আমাদের মাথার ওপরে। এরপরও প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানাচ্ছি, বিষয়টি যেন অধিকতর তদন্ত করা হয়।’

বাবুনগরী বলেন, আমরা হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে যে ১৩ দফা দাবি জানিয়েছিলাম সেগুলো বাস্তবায়ন করলে আজ আর ভোলার ঘটনা ঘটত না।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হেফাজতের নায়েবে আমির মাওলানা তাজুল ইসলাম, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা লোকমান হাকিম, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা জিয়াউল হক হাসান জিয়া, মাওলানা নাছির উদ্দীন মুনির প্রমুখ।

গত রবিবার ভোলার বোরহানউদ্দিনে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবকের বিচারের দাবিতে ‘তৌহিদি জনতা’র ব্যানারে বিক্ষোভ থেকে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে পুলিশের গুলিতে চারজন নিহত হন। নিহত চারজনকে নিজেদের কর্মী-সমর্থক বলে দাবি করে তৌহিদি জনতা। সংঘর্ষে ১০ পুলিশ সদস্যসহ দেড় শতাধিক মানুষ আহত হন।

Print Friendly and PDF

———