চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ , ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৫:৩৬ : পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজারের টেকনাফের হ্নীলার জাদিমুরা রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলার আসামি আরও দুই রোহিঙ্গা যুবক পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- নয়াপড়া রেজিস্ট্রার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৮৩৮ নম্বর বাসার একনম্বর কক্ষের জমির আহম্মদের ছেলে মো. আব্দুল করিম (২৪) ও একই ক্যাম্পের ৮৮০ নম্বর বাসার ১/২ নম্বর বাসার সৈয়দ হোসেনের ছেলে নেছার আহম্মদ প্রকাশ নেছার ডাকাত। দুইজনের বাড়ি-ই মিয়ানমারের আকিয়াবের মংডুর বুচিদং এলাকায়।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস বলেন, ‘জাদিমুরা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চাইল্ড ফেন্ডলি স্পেস অফিসের পেছনে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলার আসামিরা অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অবস্থান করছে– এমন খবরের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে সেখান ওই দুই রোহিঙ্গাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাদের উদ্ধার করে রোহিঙ্গা মাঝি ও স্থানীয়দের মাধ্যমে পরিচয় শনাক্ত করে টেকনাফ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার পাঠানো হয়। সেখানে তাদের মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।’

উল্লেখ্য, গত ২২ আগস্ট রাতে হ্নীলার জাদিমুরা এলাকায় বাড়ির সামনে থেকে নিয়ে গিয়ে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুককে হত্যা করে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। এ মামলার আসামিদের মধ্যে দুর্ধর্ষ ডাকাত নূর মোহাম্মদসহ তিন সন্ত্রাসী পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে। এ নিয়ে ওই মামলার পাঁচ আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে।

Print Friendly and PDF

———