চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ , ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কর্মস্থলে নেই রামগড়ের প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা; অভিযোগ অনিয়মের

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি প্রকাশ: ২২ আগস্ট, ২০১৯ ২:৪৬ : অপরাহ্ণ

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর হওয়া সত্তেও কোন ধরনের ছুটি ছাড়া টানা ১ আগস্ট থেকে কর্মস্থলে নেই রামগড় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রিয়াদ হোসেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম হওয়ার কারণে পাহাড়ধস, বন্যাসহ সবসময় এই দপ্তরটিকে কাজ করতে হলেও কোন কিছুর দায়বদ্ধতা ছাড়াই সবধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে ২২ আগষ্ট রির্পোটটি প্রকাশ হওয়া পর্যন্ত লাপাত্তা রয়েছেন এই কর্মকর্তা। এদিকে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোকদিবস পালনের সরকারী আদেশ থাকলেও দিবসটি পালনে উপস্থিত ছিলেন না এই কর্মকর্তা।

জানা গেছে, গত অর্থবছরে ১০জুন অফিসের নতুন ফার্নিচার ক্রয় বাবত ৮০ হাজার টাকা ও পুরাতন ফার্নিচার মেরামত ও রং করা বাবত ৩০ হাজার টাকার বিলপাশ হলেও বাস্তবে অফিসে নতুন কোন ফার্নিচার ক্রয় বা মেরামতের কিছুই হয়নি। গতজুন ক্লোজিংয়ে বিভিন্ন বিল পাশের শেষ সময় হলেও নিজ সুবিধা না পাওয়ায় তিনি কয়েকটি বিল পাশে বিলম্ব ও দায়িত্বহীনতার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া গত রমজানে খাদ্যশস্য মজুদ ও বিতরণে দুর্নীতির অভিযোগে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে জেলা এডিসি আবুল হাশেমের নেতৃত্বে তদন্ত করা হয়। এদিকে এতো অনিয়মের মধ্যে এই কর্মকর্তা নিজে তদবীর করে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন লক্ষিছড়ি উপজেলায়।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিস সহকারী নিলিময় জানান, পিআইও স্যারের অনুপস্থিতির বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন।

এব্যাপারে রামগড় উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে ইসরাত জানান, পিআইও কর্মস্থলে না থাকায় অফিস কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। অনেক চেষ্টা করেও তার যাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, বিষয়টি জেলা প্রশাসককে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে।

জেলা ত্রান ও পুর্ণবাসন কর্মকর্তা (ডিআরআরও) বাহার উল্যাহ জানান, রামগড়ের পিআইও ছুটি ছাড়াই দীর্ঘদিন কর্মস্থলে না থাকার বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন। তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব ত্রিপুরা জানান, কোন কর্মকর্তা কর্মস্থলের বাহিরে গেলে আমাকে জানানোর নিয়ম থাকলেও পিআইও তা না করেই দীর্ঘদিন কর্মস্থলের বাহিরে রয়েছেন। বিষয়টি উদ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কর্মকর্তা রিয়াদ হোসেনের সাথে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Print Friendly and PDF

———