চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ , ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শোক ব্যানার আর কালো পতাকায় ছেয়ে গেছে ‘অন্তিম’আবেগ’

এম মাঈন উদ্দিন, মিরসরাই প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ জুলাই, ২০১৯ ৯:১১ : অপরাহ্ণ

মিরসরাই উপজেলার আবুতোরাবসহ আশপাশের এলাকায় শোকের কালো ব্যানার আর কালো পতাকায় ছেয়ে গেছে। স্কুল মাঠ, বাজার, ব্যস্ত জনপদ, দোকান, পাড়া, মহল্লা সবখানেই উড়ছে কালো পতাকা আর কালো ব্যানার।

২০১১ সালের ১১জুলাই ঘটে যাওয়া স্মরণকালের এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় আবুতোরাব-বড়তাকিয়া সড়কে সৈদালী গ্রাম নামক স্থানে একটি ডোবায় পড়ে ৪৩ স্কুল ছাত্র, একজন অভিবাবক ও একজন ফুটবলপ্রেমী নিহত হন।

সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৫ জনের মৃত্যুতে আবুতোরাববাসীর কান্না আর আর্তনাদ এখনো থামেনি। আজ ১১জুলাই সেই শোকের অষ্টম বছর। স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসাগুালোতে দিনভর চলছে শোকসভা। বৃহস্পতিবার আবুতোরাব ও আশপাশের এলাকা ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

দুর্ঘটনাস্থল ‘অন্তিম’ (স্মৃতিস্তম্ভ) আবুতোরাবের পার্শ্ববর্তী সৈদালি গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, যে ডোবায় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে গিয়েছিল, সেখানে ব্যানার লাগিয়ে দিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। মিরসরাইয়ের কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ব্যাংকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন টানিয়েছেন শোকগাঁথা।

এবং আবুতোরাব বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গণে নির্মিতি ‘আবেগ’র আশপাশে বিদ্যালয়ের মাঠেও কালো ব্যানারে ছেয়ে গেছে। মাঠের আশপাশের দোকানগুলোতে উড়ছে কালো পতাকা। বিদ্যালয়েরর হলরুমে চলছে শোক কর্মসূচির অংশ হিসেবে শোকসভা।

আবুতোরাব বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, আবুতোরাব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী কলেজ ও আবুতোরাব ফাজিল মাদ্রাসায় চলছে শোকসভা। ঘটনার ৭ বছর অতিক্রম হলেও সহপাঠীদের মলিন, ভারাক্রান্ত মুখ আর চাপা কান্নায় এখনও ভারি আবুতোরাবের অপেক্ষাকৃত কোলাহলমুখর এ এলাকা।

শোকসভায় নিহতদের স্মরণ করতে গিয়ে উপস্থিত শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অবিভাবক এবং উপস্থিত সকলেই কান্নায় ভেঙে পড়েন।

শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো নয়, আবুতোরাবের পাড়ায় পাড়ায়, ঘরে ঘরে এখনও চলছে শোকের মাতম। বড়তাকিয়া থেকে আবু তোরাব আসার পথে সৈদালি গ্রামে দুর্ঘটনাস্থলে এখনও ভীড় করছেন শতশত জনতা। তাদের মধ্যে নিহতদের স্বজনও রয়েছে।

Print Friendly and PDF

———