চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯ , ১১ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিএনপির কার্যালয় গুজবের কারখানা: কাদের

প্রকাশ: ২৭ জুলাই, ২০১৯ ২:০২ : অপরাহ্ণ

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে গুজবের কারখানা দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, ‘পার্টি অফিসে বসে বসে প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে নানা অপপ্রচার করছে, অন্যদিকে গুজব রটাচ্ছে।’

শনিবার ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে এ কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

কাদের বলেন, ‘আজকে দেশের ভেতরে নানা রকম গুজব ছড়ানো হচ্ছে। দেশের বাইরে দেশও দেশকে হেয় করার জন্য অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এর সঙ্গে দেশ সাম্প্রতিক যে গুজব এর কোনো যোগসূত্র আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে।’

সম্প্রতি পদ্মা সেতু নির্মাণে এক লাখ মানুষের মাথা লাগবে বলে গুজব ছড়িয়ে দেওয়া হয় সামাজিক মাধ্যমে। উদ্ভট হলেও বহু মানুষ এই বক্তব্যে বিশ্বাস করেছে আর উত্তেজিত হয়ে অন্তত আট জনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে ‘ছেলেধরা’ অপবাদ দিয়ে। আরও বহুজনকে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে রক্ষা করেছে পুলিশ।

পুলিশ প্রধান জাবেদ পাটোয়ারি জানিয়েছেন, তাদের তদন্তে দেখা গেছে, গুজব ছড়ানোর পেছনে রাজনৈতিক ইন্ধন রয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে চাননি তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতির মাঠ এবং নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে অপপ্রচার করছে। তারা তাদের নেত্রীকে নিয়ে হতাশ করছে। তাদের নেত্রী যতটা না অসুস্থ তার থেকে বেশি প্রচারের চেষ্টা করছে। আজকে এ দলের কেন্দ্রীয় অফিসে হচ্ছে গুজবের বিশাল এক ফ্যাক্টরি। তারা তাদের পার্টি অফিসে বসে বসে প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে নানা অপপ্রচার করছে, অন্যদিকে গুজব রটাচ্ছে।’

‘দেশে বর্তমানে যে গুজব ছড়ানো হচ্ছে তাতেও এই বিএনপি নামক এ দলটির হাত রয়েছে। এদের গুজবের যে ফ্যাক্টরি সেখান থেকেই গুজব ছড়ানো হচ্ছে। আমরা জানি কে কোথায় বসে বসে ষড়যন্ত্র করছে। দেশে হচ্ছে বিদেশে হচ্ছে।’

তবে বিএনপি এসব গুজব ছড়িয়ে সফল হবে না বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘বিএনপি’র ওপর থেকে জনগণের আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। তারা এখন কোন সত্য কথা বললেও মানুষ বিশ্বাস করে না। তাদের অবস্থা গল্পের ওই রাখাল বালকের মতো। যেদিন সত্যি বাঘ আসলো মানুষ তার কথা বিশ্বাস করল না, ডাকে সাড়া দিল না। তাদের প্রতি আস্থাহীনতা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে গল্পের রাখাল বালকের মত বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে অপপ্রচার করে বেড়াচ্ছে।’

‘দেড় বছর বেগম জিয়া কারাগারে কিন্তু তারা দেড় মিনিটের জন্যও আন্দোলন করতে পারলো না!’

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক শক্তিগুলো দুর্বল হয়ে গেলেও একেবারে শেষ হয়ে যায়নি বলেও সতর্ক করেন কাদের। বলেন, ‘তারা তলে তলে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। সাম্প্রদায়িক শক্তিগুলো এখনো দেশের অভ্যন্তরে নানা চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে। দেশের বাইরেও দুই একটা চালাচ্ছে।’

Print Friendly and PDF

———