চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ , ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সারাদেশে অচল নার্সিং কলেজ

আখতার হোসাইন, সিনিয়র রিপোর্টার প্রকাশ: ১১ জুলাই, ২০১৯ ৮:৪০ : অপরাহ্ণ

দীর্ঘ ছয়দিন থেকে সারাদেশের নার্সিং কলেজ সমূহে চলছে দাবী আদায়ের আন্দোলন। আন্দোলনের মুখে অচল হয়ে পড়েছে দেশের সব কটি নার্সিং কলেজ। শিক্ষার্থীদের দাবি আদায়ের অনড় অবস্থানের মুখে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে নার্সিং শিক্ষা কার্যক্রম। ষষ্ঠ দিনের মতো ক্লাস, পরীক্ষা বর্জন ও ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিস বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের সংগঠন বাংলাদেশ বেসিক গ্র্যাজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিবিজিএসএনও)।

গত ৬ জুলাই শনিবার থেকে চার দফা দাবির আদায়ে সারাদেশে নার্সিং কলেজ সমুহে এক সাথে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘ ৬দিন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা যৌক্তিক দাবীতে আন্দোলন করলেও তাদের দাবী দাওয়া ও প্রতিবাদের ভাষা বুঝছে না কেউ। সরকার কিংবা সংশ্লিষ্ট কেউ তাদের দাবী মেনে নেয়া তো দূরের কথা তাদের সাথে কোন আলোচনা করছে বলে জানান শিক্ষার্থী জিনিয়া রহমান।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ বেসিক গ্র্যাজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনেরর (বিবিজিএসএনও) সভাপতি সাব্বির আহমেদ খান বলেন, চার দফা দাবি আদায়ে আজ কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল প্রদক্ষিণ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছি। কলেজের সকল ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানান তিনি।

দাবী সমূহের মধ্যে রয়েছে নার্সিং পেশায় স্বতন্ত্র ক্যাডার সার্ভিস (বিসিএস) চালু, ইন্টার্ন ভাতা ছয় হাজার থেকে ২০ হাজারে উন্নীত করণ, নার্সিং কলেজকে পূর্ণাঙ্গ কলেজে রুপান্তর এবং পুরাতন পাঠদান বহাল রাখার দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। দেশের সকল নার্সিং কলেজে একযোগে পালিত হচ্ছে এ কর্মসূচী। চট্টগ্রাম নার্সিং কলেজে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন সভাপতি সাব্বির আহমেদ খান, সম্পাদক মামুনুর রশীদ, হাজেরা আক্তার, জিনিয়া রহমান, ঝুমু আক্তার, চৈতী ঘোষ ও মৌসুমী আক্তার।

Print Friendly and PDF

———