fbpx

চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯ , ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘বালিশকাণ্ডের’ নির্বাহী প্রকৌশলী ছিলেন ছাত্রদল নেতা: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ: ১৭ জুন, ২০১৯ ৬:১৩ : অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদে রূপপুরের পারমাণবিক বিদ্যুকেন্দ্রে ‘বালিশকাণ্ডের’ ঘটনায় প্রত্যাহার হওয়া নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদুল আলমের ছাত্র রাজনীতির পরিচয় তুলে ধরলেন। জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা এক সময় বুয়েট ছাত্রদলের নির্বাচিত ভিপি ছিলেন।

সোমবার জাতীয় সংসদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের আলোচনায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের পক্ষে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ এ কথা জানান।

সম্প্রতি পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের আওতায় ভবনের আসবাবপত্র ও বালিশ ক্রয়সহ অন্যান্য কাজের অস্বাভাবিক ব্যয়ের অভিযোগে প্রত্যাহার করা হয় নির্বাহী পরিচালক মাসুদুল আলমকে। বিষয়টি গণমাধ্যমে আসার পর দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় তোলে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যে ভদ্রলোক এই বালিশকাণ্ড ঘটিয়েছেন, আমি খোঁজ নিয়ে জেনেছি তিনি এক সময় বুয়েট ছাত্রদলের নির্বাচিত ভিপি ছিলেন। যাই হোক, ভদ্রলোককে প্রত্যাহার করা হয়েছে।’

এ সময় বিএনপি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের এক বক্তব্যের জবাবে সরকারপ্রধান বলেন, ‘একজন সংসদ সদস্য বললেন, প্রতিবার নির্বাচিত হলেই প্লট পাবেন। আমি তো সাতবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য। আমি তো কোনো প্লট নিইনি।’

সম্পূরক বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত গণফোরামের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান দেশে সুশাসন নেই বলে অভিযোগ করেন।

এই বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের আরেকজন মাননীয় সংসদ সদস্য বললেন, সুশাসনের অভাব। উনি যে দল থেকে এসেছেন, নবগঠিত দল। আসলে আওয়ামী লীগ ভেঙেই ওই দলটি গড়া হয়েছিল। উনাদের নেতা আওয়ামী লীগই করতেন। তারপর চলে গিয়েছিলেন। কাজেই তার দলে কী ডিসিপ্লিনটা আছে? কী দলতন্ত্রটা আছে? যার নিজের দলেই সুশাসন নেই, গণতন্ত্র নেই, ডিসিপ্লিন নেই; যেখানে কেউ কথা বলতে গেলেই বলেন খামোশ; তার কাছ থেকে কী আশা করা যায়?’

Print Friendly and PDF

———