চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯ , ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে চট্টগ্রামের প্রধান ঈদ জামাত

প্রকাশ: ৪ জুন, ২০১৯ ৯:০৮ : অপরাহ্ণ

ঈদ জামাতের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পরিদর্শন করছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিননির্বিঘ্নে ঈদের নামাজ সম্পন্ন করতে নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ মাঠে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

প্রধান ঈদ জামাতের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ফটকগুলোতে তিনটি মুভিং ক্যামেরাসহ ২২টি সিসি ক্যামেরা বসানো হচ্ছে।

সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন সোমবার (৩ জুন) দুপুরে নগরীর ঈদ জামাতের প্রস্তুতি পরিদর্শনকালে এসব কথা জানিয়েছেন।

এ সময় মেয়র বলেন, ‘সিসিটিভি ক্যামেরার বাইরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও ঈদ জামায়াতের নিরাপত্তায় সতর্ক অবস্থায় থাকবে। পাশাপাশি বৃষ্টির আশঙ্কা মাথায় রেখে ঈদ জামাতের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হচ্ছে। ভারী বৃষ্টিতেও যাতে মুসল্লিরা ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেন, সেজন্য ত্রিপলের শামিয়ানা দেওয়া হচ্ছে।’

এদিকে ঈদ জামাতকে ঘিরে নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমান। সোমবার ঈদ জামাতের প্রস্তুতি পরিদর্শন করে তিনি বলেন, ‘ঈদ জামাতের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা কোনও ধরনের হুমকি অনুভব করছি না। কয়েক বছর আগে শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে যে হামলা হয়েছিল, সেটি মাথায় রেখে আমরা সব ধরনের নিরাপত্তার ব্যবস্থা সাজিয়েছি।

চট্টগ্রামে ঈদ জামাতের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট সোয়াত, কুইক রেসপন্স টিম, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ঈদ জামাতের আশেপাশে স্ট্যান্ডবাই থাকবে।’

ঈদ জামাতে কোনও ব্যক্তিকে তল্লাশি ছাড়া প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার। তিনি বলেন, ‘জমিয়াতুল ফালাহ মাঠে তিনটি গেট দিয়ে মুসল্লিরা প্রবেশ করতে পারবেন। প্রত্যেক গেটে তল্লাশির ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।

তল্লাশি শেষে মুসল্লিরা ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন।’ তিনি মুসল্লিদের জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া অন্যকিছু সঙ্গে না আনার অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ মাঠে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। একই স্থানে সকাল ৮টায় প্রথম জামাত এবং সকাল ৯টায় দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন জমিয়তুল ফালাহ মসজিদের খতিব ও জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস আল্লামা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী।

দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করবেন জমিয়তুল ফালাহর পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা আহমুদুল হক। এছাড়া এবার নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে ছোট-বড় মোট ১৬৪টি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

Print Friendly and PDF

———