চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯ , ১১ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বন্দরনগরীতে অবশেষে নামলো শা‌ন্তির পরশ জুড়ানো বৃষ্টি‌

সিটিজি টাইমস ডেস্ক প্রকাশ: ১৭ মে, ২০১৯ ১০:৪৯ : অপরাহ্ণ

কিছুদিন যাবত প্রচণ্ড গরমের কারণে নগরবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রা মারাত্মকভা‌বে ব্যাহত হচ্ছিল। ঘরে-বাইরে গরমে অস্ব‌স্তিকর গুমোট প‌রিবেশের সৃ‌ষ্টি হয়েছিল। নগরবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিল কখন বৃষ্টি নামবে, কখন শীতল করবে মনপ্রাণ। অবশেষে নামলো প্রতীক্ষিত বৃ‌ষ্টি। স্ব‌স্তি পে‌ল নগরবা‌সী।

শুক্রবার (১৭ মে) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে বন্দরনগরীতে ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে। ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঠাণ্ডা বাতাস বইছে। থেমে থেমে বিদ্যুৎও চমকাচ্ছে।

এদিকে রাস্তায় থাকা ব্যস্ত মানুষরা বৃষ্টির কারণে আটকে যান। নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে আপাশের দোকানপাটে ছুটে যায় মানুষ। এর আগে সকালে নগরীতে রোদের তাপ থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোদের ফাঁকে ফাঁকে মেঘও চোখে পড়ে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যায় ইফতারের পরপর হঠাৎ তীব্র কালবৈশাখী ঝড়ে রাজধানীর মধ্যবাড্ডায় দেয়াল চাপায় তিনজন নিহত হয়েছেন।

বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, মধ্যবাড্ডায় প্রাণ সেন্টারের পাশে একটি দেয়াল ধসে তিনজন আহত হয়। এর মধ্যে ২ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ও একজনকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে তিনজনই নিহত হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।

এদিকে ঝড়ে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে তাঁবু ছিঁড়ে খুঁটির আঘাতে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আরও ২০ থেকে ২২ জন আহত হন। নিহতের নাম শফিকুল ইসলাম (৩৬)। তার বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, বায়তুল মোকাররমে হতাহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসকরা একজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে এসআই বাচ্চু জানান, ইফতারের পরে নামাজ পড়ার জন্য মুসল্লিরা প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় ঝড়ের কবলে পড়ে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরত কর্মকর্তা রাসেল সিকদার জানান, সন্ধ্যার তীব্র কালবৈশাখী ঝড়ে বায়তুল মোকারম মসজিদ প্রাঙ্গণের দক্ষিণ অংশে স্থাপিত অস্থায়ী তাঁবু ভেঙে পড়ে হতাহতের ওই ঘটনা ঘটে। এছাড়া ঝড়ে কয়েক জায়গায় গাছ উপড়ে গেছে।

Print Friendly and PDF

———