চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯ , ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে জেলেদের বিক্ষোভের মুখে প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

সিটিজি টাইমস ডেস্ক প্রকাশ: ১৬ মে, ২০১৯ ১০:১৯ : অপরাহ্ণ

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু বঙ্গোপসাগরে সামুদ্রিক মাছ আহরণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে মতবিনিময় করতে এসে জেলেদের বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে মতবিনিময় সভা শেষে জেলেদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। বিক্ষোভের সময় জেলেরা ‘মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা, মানি না মানবো না’ স্লোগান দিয়ে প্রতিমন্ত্রীর গাড়ি আটকে তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেন। তবে পুলিশের সহায়তায় তিনি সার্কিট হাউজ থেকে বের হয়ে যান।

প্রতিমন্ত্রীর পেছনের গাড়িতে থাকা চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের গাড়ি থামিয়ে জেলেদের সঙ্গে কথা বলেন। মাছ আহরণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে বিকল্প ব্যবস্থা এবং সহায়তার আশ্বাস দেন।

‘মাছ আহরণ বন্ধের নিষেধাজ্ঞা মানাতে প্রয়োজনে বলপ্রয়োগ’

সরকারি নিষেধাজ্ঞা না মেনে সাগরে মাছ আহরণ করলে কঠোরভাবে ‘আইন ও বল’ প্রয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে ‘বঙ্গোপসাগরে সকল প্রকার নৌযান কর্তৃক মৎস্য ও ক্রাস্টাসিয়ান্স আহরণ বন্ধের বাস্তবায়ন বিষয়ক’ মতবিনিময় সভায় তিনি একথা জানান।

সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের উন্নয়নে ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত বঙ্গোপসাগরে ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ ঘোষণা নিয়ে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু বলেন, ‘বঙ্গোপসাগরে সামুদ্রিক মাছ আহরণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। প্রয়োজনে নৌবাহিনী, কোষ্টগার্ড সদস্যরা কঠোর আইন ও বলপ্রয়োগ করতে বাধ্য হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘মাছের মজুদ সংরক্ষণ সুষ্ঠু ও সহণশীল আহরণ নিশ্চিত করার স্বার্থেই এটা করা হচ্ছে। এর ফল হিসেবে প্রজনন মৌসুমের পর বিপুল পরিমাণ মাছ আহরণ করেন জেলেরা।’

Print Friendly and PDF

———