চট্টগ্রাম, সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯ , ৩রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু

সিটিজি টাইমস ডেস্ক প্রকাশ: ২২ মে, ২০১৯ ১২:০১ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। আজ দেয়া হচ্ছে আগামী ৩১ মে’র টিকিট।

বুধবার (২২ মে) সকাল ৯টা থেকে  নয়টি আন্তঃনগর ও দুটি স্পেশাল ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের ১০টি কাউন্টারে। এবার একজন যাত্রী একসঙ্গে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। এজন্য অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে। এবারই রেলের ৫০ শতাংশ টিকিট অ্যাপের মধ্যে বিক্রি করা হচ্ছে।

রেলওয়ের পূর্বাঞ্চল সূত্র জানায়, আজ (২২ মে) দেয়া হবে ৩১ মে তারিখের টিকিট। এরপর ২৩, ২৪, ২৫ ও ২৬ মে দেয়া হবে যথাক্রমে ১, ২, ৩ ও ৪ জুনের টিকিট।, একইভাবে আগামী ২৯ মে থেকে ঈদ পরবর্তী ফেরার টিকিট বিক্রি শুরু হবে। ওই দিন দেয়া হবে ৭ জুনের টিকিট। এরপর ৩০ ও ৩১ এবং ১ ও ২ জুন দেয়া হবে যথাক্রমে ৮, ৯, ১০ ও ১১ জুনের টিকিট।

সরেজমিনে দেখা যায়, প্রথম দিনে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীরা সেহেরি খেয়েই লাইনে অবস্থান নেন। যদিও আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হয় সকাল ৯টায়। আবার অনেকে সেহেরি পর্যন্ত অপেক্ষা না করে মধ্যরাত থেকেই চাটাই-মাদুর বিছিয়ে অপেক্ষা করেছেন টিকিটের জন্য।

বিক্রি শুরুর আগ পর্যন্ত প্রতিটি কাউন্টারের সামনে শুয়ে-বসে সময় পার করেছেন টিকিট সংগ্রহকারীরা।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা এস এম মুরাদ হোসেন বলেন, প্রতিদিন মোট ১২ হাজার টিকিট বিক্রি করা হবে। এরমধ্যে রেলওয়ের অ্যাপসে ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ৬ হাজার টিকিট এবং বাকি ৬ হাজার টিকিট রেল স্টেশন থেকে দেয়া হবে।

রেলের অ্যাপে ভোগান্তির জন্য মন্ত্রীর দু:খ প্রকাশ

‘রেলসেবা’ নামে টিকিট বিক্রির অ্যাপে ভোগান্তির জন্য দু:খ প্রকাশ করেছেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে বুধবার ( ২২ মে) সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে আসেন মন্ত্রী।

পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপাকালে বিষয়টির জন্য দু:খ প্রকাশ করে রেলপথ মন্ত্রী বলেন, ‘সার্ভারে ত্রুটি’, ‘বিক্রি শুরুর আগেই টিকিট শেষ হয়ে যাওয়াসহ নানা ধরনের অভিযোগ পাচ্ছি। এসব কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায়নি। এ ধরনের ভোগান্তি সত্যিই দু:খজনক।

তিনি বলেন, নতুন একটি অ্যাপ চালু করেছি আমরা। তাই নানা ধরনের অব্যবস্থাপনা ধরা পড়ছে। আগামীতে যেন এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে সেজন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঈদের পরেই এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে কার্যক্রম গ্রহণ করবো।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ এপ্রিল ‘রেলসেবা’ একটি অ্যাপ উদ্বোধন করেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। ‘সার্ভারে ত্রুটি’, ‘বিক্রি শুরুর আগেই টিকিট শেষ’, ‘টিকিট না দিয়েই টাকা কেটে রাখা’-প্রতিদিন এ ধরনের অসংখ্য অভিযোগ রেলপথ মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ রেলওয়েতে জমা পড়ছে। এসব অভিযোগের কোনো সুরাহা না করেই আজ শুরু হয়েছে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি।

Print Friendly and PDF

———