চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯

ফটিকছড়িতে বাসায় ঢুকে গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা : দুজন আটক

প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৪ ২১:০৭:৫৫

ফটিকছড়িতে গভীর রাতে বাসায় ঢুকে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।নিহত মামুনি ধর (২৪) হারুয়ালছড়ি গ্রামের রূপককান্তি দে’র স্ত্রী।

এ ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে আসল ঘটনার রহস্য জানা যাবে বললেন ওসি।

মামুনি ধরকে বাঁচাকে গিয়ে মারাত্মক আহত হয়েছেন তার শ্বশুর মিলন কান্তি দে। দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মিলন কান্তির নাড়িভুড়ি বের হয়ে গেছে।

ভুজপুর খানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মো আব্দুল্লাহ জানান, শনিবার রাত দেড়টার দিকে দুই দুর্বৃত্ত নরেন্দ্র কুমার দের বাড়ির একতলা ভবনের সিঁড়ি ঘরের দেয়াল ভেঙে ঘরে ঢুকে।

তারা ঘুমন্ত গৃহবধূর গলায় ছুরি চালায়। এ সময় আক্রান্ত মামুনি দে’র চিৎকারে পাশের রুমে থাকা শ্বশুর মিলন কান্তি দে এবং শাশুড়ী রত্মা দে তাকে বাঁচাতে আসেন। দুর্বৃত্তরা তাদের ওপরও হামলা চালায়।

হামলায় ওই গৃহবধূ ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত মিলন কান্তিকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, ‘ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে আমরা দুই যুবককে আটক করেছি। নিহতের শাশুড়ি তাদের শনাক্ত করেছেন। তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আটক দুই যুবকের নাম সানি ও জয়। তারা ওই নারীর প্রতিবেশী।’

পূর্ব শত্রুতা-নাকি ডাকাতি?

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে মিলন কান্তির পরিবার চাষাবাদের ধান বিক্রি করে। ডাকাতদল ধান বিক্রির টাকা লুটপাট করতেই শনিবার রাতে সেই বাড়িতে হানা দেয়।

তবে ভুজপুর থানার ওসির দাবি, এটি ডাকাতির ঘটনা নয়। পূর্ব শত্রুতার জেরে এই হত্যাকাণ্ড হতে পারে। কারণ বাড়ি থেকে কোনো মালামাল ও টাকা খোয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, নিহত গৃহবধূর স্বামী প্রবাসী। শ্বশুর-শাশুড়ীর সঙ্গে তিনি থাকতেন।