চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯

চট্টগ্রামে চোরাই পণ্য অনলাইনে বিক্রি, আটক ৩

প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৩ ১৯:২৩:৫৮

চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে চোরচক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে সদরঘাট থানা পুলিশ; যারা চোরাই পণ্য অনলাইনে বিক্রি করে আসছিল।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- চক্রের মূলহোতা টুটুল চক্রবর্তী (২১), চক্রের সদস্য রমজান আলী (২২) ও আলী হোসেন ওরফে কালু (২৫)। তাদের কাছ থেকে একটি চোরাই ল্যাপটপ ও দুটি চোরাই মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় জানিয়ে সদরঘাট থানার ওসি নেজাম উদ্দীন বলেন, গ্রেপ্তারকৃতরা রাতের বেলা রিকশা ও সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে নগরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়ায়।

সুযোগ বুঝে ভবনের পাইপ দিয়ে উপরে উঠে রান্না ঘরের দরজা বা জানালার গ্রিল ভেঙে বাসার ভেতরে প্রবেশ করে চুরি করে।

সদরঘাট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন বলেন, গত ২২ মার্চ রাতে পশ্চিম মাদারবাড়ির একটি বাসা থেরেক মোবাইল, ল্যাপটপসহ ৬৩ হাজার ১০০ টাকা মূল্যমানের মালামাল চুরি হয়।

এ ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ তদন্তে নেমে জড়িত ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। তারা চোরচক্রের সক্রিয় সদস্য। খুলশী থানাধীন আমবাগান এলাকায় তারা বসবাস করে।

সদরঘাট থানার ওসি নেজাম উদ্দীন বলেন, চোরাই মালামাল তারা বিক্রয়ডটকম. সেলবাজারডটকমের মতো অনলাইন সাইটগুলোর মাধ্যমে বিক্রি করে।

বিক্রির পর তারা ফেইক আইডিগুলো ডিঅ্যাকটিভ করে দেয়; যেগুলো ব্যবহার করে তারা চোরাই পণ্য বিক্রি করেছে। এটা করার কারণ হচ্ছে, যাতে পুলিশের হাতে ক্রেতা ধরা পড়লে চোরচক্রের সন্ধান না পায়।

আইনী ঝামেলা এড়াতে অনলাইনে পণ্য কেনার সময় বিক্রেতার জাতীয় পরিচয়পত্র, মোবাইল নাম্বার, ছবি ও মেমো সংগ্রহ করার জন্য ক্রেতাদের প্রতি পরামর্শ দিয়েছেন ওসি নেজাম উদ্দীন।