চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯

ফের সংঘাতে জড়িয়েছে চবি ছাত্রলীগ: আহত ১০, আটক ৬

প্রকাশ: ২০১৯-০৪-০২ ২১:২৩:৩৪

পূর্ব ঘটনার জের ধরে ফের সংঘাতে জড়িয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতা-কর্মীরা।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) শাটল ট্রেনের বগি-ভিত্তিক গ্রুপ ‘চুজ ফ্রেন্ডস উইথ কেয়ার’ (সিএফসি) ও ‘বিজয়’ গ্রুপের মধ্যে আবারো সংঘর্ষ ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন আহত ও ৬ জন আটক হয়েছেন। একথা জানিয়েছেন চবি পুলিশ।

আটকরা হলেন, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ইয়াসিন আরাফাত কাইসার, ইংরেজি বিভাগের ১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের বেলাল হোসেন, ইতিহাস শিক্ষাবর্ষের ১৬-১৭ অমিত রায়, সিফাত উল্লাহ সরকার, খালেদ মাসুদ ও সাকিব হাসান।

সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুর রব হলের মাঠে খেলতে গেলে বিজয় গ্রুপের দর্শন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের আবু বক্করকে মারধর করে সিএফসি গ্রুপের কর্মীরা।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজয় গ্রুপ সোহরাওয়ার্দী হল এবং সিএফসি গ্রুপ শাহ আমানত হলের সামনে অবস্থান নেয়। পরবর্তীতে এক পর্যায়ে তার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এসময় উভয়পক্ষ ব্যাপক ইট পাটকেল ছোড়াছুড়ি করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজয় গ্রুপের নেতা ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর জীবন সাংবাদিকদের বলেন, সিএফসি গ্রুপের নেতাদের ছাত্রত্ব নাই। তারা ইচ্ছাকৃতভাবে আমাদের নেতা নওফেল ভাইয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার জন্য এ ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে।

তবে এ বিষয়ে সিএফসি গ্রুপের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। একাধিক নেতাকে মুঠোফোনে কল দিয়েও সাড়া পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে হাটহাজারি মডেল থানা পুলিশের ওসি বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীর বলেন, ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আমরা ঘটনাস্থল থেকে ৬ জনকে আটক করি। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

এই বিষয়ে চবি পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো: আক্তারুজ্জামান বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সংঘর্ষে জড়িয়েছেন চবি শাখা ছাত্রলীগের শাটল ট্রেনের বগি-ভিত্তিক দুই গ্রুপ। ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

চবি মেডিকেলের দায়িত্বরত পরিদর্শক আতাউর গণি পারভেজ বলেন, দশজনকে মেডিকেলে নিয়ে আসা হয়। তাদের মধ্যে কয়েকজনের মাথায় আঘাত রয়েছে। আহতদের মেডিকেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ঘটনা নিয়ে সিএফসি গ্রুপের নেতা ও বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বলেন, এক কুচক্রী মহল ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে।