চট্টগ্রাম, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

ফটিকছড়িতে আনারসের ভারে নৌকার ভরাডুবি, শেষ হাসি আবু তৈয়বের

প্রকাশ: ১৮ মার্চ, ২০১৯ ৮:২০ : অপরাহ্ণ

মীর মাহফুজ আনাম

ভোট নয় যেন নিজেদের অস্তিত্বের লড়াইয়ে নেমেছিলেন নাজিম উদ্দিন মুহুরী ও এইচ এম আবু তৈয়ব । একজন নৌকা প্রতীক নিয়ে অপর জন দলের ভেতর বিদ্রোহ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। শেষতক শেষ হাসি হাসলেন স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকের প্রার্থী এইচ এম আবু তৈয়ব। এইচ এম আবু তৈয়বের আনারস প্রতীকের প্রাপ্ত ভোট ৫৭ হাজার ৬২৮।

নাজিম উদ্দিন মুহুরীর নৌকা প্রতীকের প্রাপ্ত ভোট ৪২ হাজার ৩৯৪ ভোট।

১৫ হাজার ২৩৪ ভোট বেশি পেয়ে এইচ এম আবু তৈয়ব বেসরকারীভাবে ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন। এ যেন আনারসের ভারে নৌকার ভরাডুবি!

সকাল আটটা থেকে শুরু হওয়া ভোট গ্রহনে ভোটারদের তেমন সরব উপস্থিতি দেখা যায়নি। প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে কোন প্রকার অপ্রিতীকর ঘটনা ঘটেনি। এ ছাড়া অনেকটা সুষ্ঠু ভোটগ্রহন অনুষ্টিত হয়। যদিওবা ভোটারদের স্বতস্পূর্ত অংশ গ্রহন চোখে পড়েনি। এ দিকে দুপুর নাগাদ ফেইসবুকে স্বতন্ত্র বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের এইচ এম আবু তৈয়ব ভোট বর্জন করেছে বলে ফেইসবুকে গুজব ছড়িয়েছে একটি পক্ষ।

সকাল ৮ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত কোথাও বড় ধরনের কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া না গেলেও দুপুর ১২ টার দিকে আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এইচ.এম আবু তৈয়ব ফটিকছড়ি পৌরসভার উত্তর রাঙ্গামাটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরিদর্শনে গেলে সেখানে নৌকার সমর্থকেরা তার উপর হামলার চেষ্টা করে। এ সময় মিছিলসহকারে তার বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে নৌকার সমর্থকেরা। এ ঘটনায় আলা উদ্দীন ও নাছির নামের দুই ছাত্রলীগকর্মী আহত হয়। পরে তিনি পুলিশ হেফাজতে কেন্দ্র এলাকা ত্যাগ করেন