চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯

সোমবার ক্রিকেটারদের জন্য বিশেষ প্রার্থনা

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৭ ১৯:৪২:১৩ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১৭ ১৯:৪২:১৮

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে অল্পের জন্য সন্ত্রাসী হামলা থেকে বেঁচে ফেরা জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের জন্য বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সোমবার দুপুর ২টায় শের-ই-বাংলা স্টেডিয়াম প্রাঙ্গনে সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে এ প্রার্থনায় সামিল হবেন ক্রিকেটার ও বিসিবি কর্মকর্তারা।

শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা থেকে ভাগ্যের ছোঁয়ায় রক্ষা পান বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

জুম্মার নামাজ আদায় করতে হ্যাগলি ওভাল স্টেডিয়াম থেকে মসজিদের সামনে পৌঁছাতে কয়েকমিনিট দেরি না হলে ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার জন্ম হতে পারত। ঝরে যেতে পারত ক্রিকেটারদের প্রাণ।

মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার সময়টাতে ভাগ্যক্রমে নিরাপদে সরে আসতে সক্ষম হন ক্রিকেটাররা। কিছুক্ষণ পরই জানা যায় রক্তে ভেসে গেছে পুরো মসজিদ। বন্দুকধারীর গুলিতে অর্ধশত মানুষ নিহত হয়। আহত হয়েছেন অনেকেই।

ঘটনার পর তৃতীয় টেস্ট না খেলেই ক্রাইস্টচার্চের টিম হোটেলে নির্ঘুম রাত কাটিয়ে ২২ ঘণ্টার বিমানভ্রমণ শেষে টেস্ট দলের ১৫ ক্রিকেটার ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান শনিবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে। নৃশংস ঘটনার একদিন পরও ক্রিকেটারদের চোখেমুখে দেখা গেছে আতঙ্কের ছাপ।

শুক্রবার আল নূর মসজিদের প্রবেশ গেট থেকে ২০ গজ দূরে থামে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের বাস। নেমে মসজিদের ভেতর যাওয়ার আগেই এক নারী চিৎকার করে বলতে থাকেন, তোমরা মসজিদে যেয়ো না। তারপরই রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখেন ক্রিকেটাররা।

বুদ্ধি করে বাস থেকে নেমে পার্কের ভেতর দিয়ে দৌঁড়ে মাঠে চলে যান মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ-তামিম-মিরাজ-তাইজুলরা। পরে পুলিশের সহায়তায় তারা টিম হোটেলে পৌঁছান। সেখানে বিনিদ্র রাত পার করে সকালে রওনা হন দেশের উদ্দেশে।